অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির বেতার ভাষণ

Posted on Posted in 3
শিরোনামসূত্রতারিখ
অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির বেতার ভাষনদি স্টেটস্ম্যান- নয়াদিল্লী৩০ জুন, ১৯৭১

 

ইয়াহিয়া রণক্ষেত্রে জবাব পাবে

সৈয়দ নজরুল ইসলাম,বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতির বেতারবার্তা

৩০ জুন, ১৯৭১

 

পিটিআই রিপোর্ট করেছে, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি বলেছেন যে মুক্তিযোদ্ধারা ইয়াহিয়া খানের উদ্ধত বেতার বার্তার যথোপযুক্ত জবাব রণক্ষেত্রেই দিবে। রেডিও বাংলাদেশের অনুসারে,ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি এক বিবৃতিতে বলেছেন যে পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির বক্তব্য গম্ভীরভাবে বিবেচনা করার যোগ্যতা রাখে না। প্রায় সাড়ে সাত কোটি মুক্তিযোদ্ধা তার “ঘৃণা ও বিতৃষ্ণা” ভরা বক্তব্য শুনেছে। সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেছেন:”আমরা বর্তমানে একটি মুক্তিযুদ্ধের মধ্যবর্তী সময়ে অবস্থান করছি। যতক্ষণ না পর্যন্ত আমরা আমাদের ভূমি হতে প্রত্যেক বিদেশী সৈন্যদের নিশ্চিহ্ন না করবো ততক্ষণ আমরা বিশ্রাম করবো না”।

 

নিষ্ঠুর রসিকতা

 

কূটনীতিজ্ঞ ব্যক্তির বিশেষ প্রতিনিধি অনুসারে, বাংলাদেশের ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি(ওয়ালী-মুজাফ্ফর দ্বারা চালিত) বাংলাদেশের সাড়ে সাত কোটি জনগণের উপর রচনা করা রাষ্ট্রপতি ইয়াহিয়া খানের শাসনতান্ত্রিক পরিকল্পনাকে নিষ্ঠুর রসিকতা হিসেবে বর্ণনা করেছে”।

 

(কূটনীতিজ্ঞ ব্যক্তি, নয়া দিল্লী- ২ জুলাই,১৯৭১)