আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক ব্রিগেডের প্রাক্তন প্রধান কর্তৃক বাংলাদেশের পক্ষে যুদ্ধ করার ইচ্ছা প্রকাশ

Posted on Posted in 4

<৪,১৭৪,৩৪৭>

অনুবাদকঃ ফাহমিদা আক্তার বৃষ্টি

শিরোনাম       সূত্র     তারিখ
১৭৪। আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক ব্রিগেডের প্রাক্তন প্রধান কর্তৃক বাংলাদেশের পক্ষে যুদ্ধ করার ইচ্ছা প্রকাশব্যাক্তিগত চিঠিপত্র১৫’ই মে,১৯৭১

 

 

                                                 পিয়াসাংগান লামা ১১১/৩৯,                                                   জাতিনেগারা, জাকার্তা-ইন্দোনেশিয়া

মে ১৫,১৯৭১

 

 

প্রিয় জনাব হুসাইন আলী,

     আমি নোয়াখালী জেলায় জন্মগ্রহণ করেছি এবং ব্রিটিশ ভারত সেনাবাহিনীতে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় যোগদান করেছিলাম। ১৯৪৫ সালে আমি ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাথে ইন্দোনেশিয়া আসি। আমি ইন্দোনেশিয়াতে স্বাধীনতা সংগ্রামের আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক সৈন্যদলের নেতৃত্ব দিচ্ছিলাম। আমি তখন থেকেই ইন্দোনেশিয়াতে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেছি এবং বর্তমানে একজন বৃত্তিভোগী লোক।

     আপনি যেহেতু ইন্দোনেশিয়ান স্বাধীনতার মর্ম উপলব্ধি করতে পারেন, আমাদের গেরিলা যুদ্ধবিষয়ক বিশেষজ্ঞ আছে এবং এখনো আমার কাছে এই বিষয়ক ২০০০ কর্মিবৃন্দ আছে।

    আমি তবুও এই ধারণায় ছিলাম যে এই অনুশোচনীয় হত্যার শেষ হবে এবং চূড়ান্ত নিষ্পত্তিতে এই সমস্যার একটি শান্তিপূর্ণ সমাধান একটি বা অন্য উপায়ে আসবে । কিন্তু এটি মনে হচ্ছে যে পশ্চিম পাকিস্তানিরা আন্তর্জাতিক মতবাদ ছাড়া এই হত্যাকাণ্ড বন্ধ করবে না।

   আমার অভিপ্রায় যে আমি আমার ২০০০ কর্মিবৃন্দসহ বাঙলায় ছেড়ে আসা আমার আত্মীয়স্বজন, যারা এখন শোচনীয়ভাবে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে এবং নির্বিচারে  খুন হচ্ছে, তাদের মুক্ত করতে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করতে পারতাম। আমি ইন্দোনেশিয়ার গণতান্ত্রিক সরকারের কাছে একটি স্বেচ্ছাসেবক সৈন্যদল গঠনের জন্য অনুমতি চাইতে পারি কিন্তু তার অর্থনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে সে এটির আর্থিক যোগান দিতে পারবে না। আপনাদের সংগ্রামে একটি সক্রিয় অংশগ্রহণের জন্য আমার প্রস্তাব দৃঢ় থাকবে, যদি সৈন্যদের ব্যয়ভার বহন এবং বস্তুগত সাহায্য পাওয়া সম্ভব হয়।

   দয়া করে আমার সম্মান এবং শুভ কামনা গ্রহণ করুন বাংলাদেশ সরকার এবং তার জনগণের জন্য এবং আমাকে জানান যদি আমি আমার মাতৃভূমির কোন কাজে বা ব্যবহারে আসতে পারি। সকল সহানুভূতি এবং সমর্থন।

                                                           আপনার অনুগত,

প্রাক্তন মেজর আব্দুল মতিন

                                                          প্রাক্তন প্রধান কমান্ডার,

                                                  আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক সৈন্যদল।