ইন্দোনেশিয়ার জনমত সম্পর্কে ‘আমরা’ গোষ্ঠী কর্তৃক প্রেরিত প্রতিবেদন

Posted on Posted in 4

<৪,১৮৪,৩৬৫>

অনুবাদকঃ মুশাররাত আলম মৌ

শিরোনামসূত্রতারিখ
১৮৪। ইন্দোনেশিয়ার জনমত সম্পর্কে ‘আমরা’ গোষ্ঠী কর্তৃক প্রেরিত প্রতিবেদন‘আমরা’১লা আগস্ট, ১৯৭২

    জাকার্তা , ১-৮-১৯৭১

১। ১১-১৩ আগস্টের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় আলোচনার জন্য এই রাজধানীতে জনাব স্বারান সিং এর প্রস্তাবিত সফর সম্পর্কে এখানে প্রকাশিত হয়েছিল। এটি পররাষ্ট্র মন্ত্রী আদম মালিক কর্তৃক প্রকাশ করা হয়েছে।

২। ইউ এন পর্যবেক্ষকদের নিযুক্ত করার ব্যাপারে ইন্ডিয়ার প্রত্যাখান এর প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, ইন্ডিয়ার দৃষ্টিকোন হল যে, এটি বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার সমস্যা। ইউ এন পর্যবেক্ষকগন ইন্ডিয়ার এলাকায় অবস্থান করতে পারে না।

৩। অগাস্টে ইয়াহিয়া কানের ঢাকা সফরের পরিকল্পনা এখানে প্রকাশিত হয়েছে। সম্প্রতি করাচিতে ইয়াহিয়ার টেলিভিশন সাক্ষাতকারে  বিবিসি প্রতিনিধি আমন্ত্রিত ছিলেন না।

৪। আন্তারায় প্রকাশিত একটি খবরে বলা হয়েছে যে, ইন্ডিয়া ইরানিয়ান এবং কুয়েতি প্রতিনিধিদের মালয়েশিয়ার টেংকু আব্দুল রহমানের সাথে শরনার্থী শিবির পরিদর্শনের অনুমতি দেবে না। এই খবরে ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে যে, ইরান এবং কুয়েতের এতে সমর্থন ছিল।

৫। দুইটি তালিকা ইহার সাথে প্রকাশ করা হয়েছে- একটি সংবাদপত্রের এবং আরেকটি মুসলিম বুদ্ধিজীবীদের। এগুলো হল সম্পুর্ন তালিকা। উভয় তালিকায় গুরুত্বপুর্নদের তারকা দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদের প্রয়োজনীয় উপকরন সরবরাহ করা হতে পারে। যদি এটি করা হয়ে থাকে তবে অনুগ্রহপুর্বক জানাবেন।

৬। কিছু স্থানীয় ভাষার পত্রিকার সম্পাদকীয়তে বাংলাদেশের সংগ্রামকে শক্তভাবে সমর্থন করা হয়েছে। সম্পাদকীয়গুলোতে সৈন্যবাহিনীর বর্বরতার পূর্ণ বিবরণ প্রকাশ করা হয়েছে এবং সরকার কি উপায় গ্রহণ করতে পারে সেটির ব্যাপারে পরামর্শ দেয়া আছে।

৭। তাদের পক্ষ থেকে ইস্যু করার জন্য পুর্বে একটি খসড়া চিঠি পাঠানো হয়েছে। অনুগ্রহপুর্বক অতিসত্বর সেটি ইস্যু করুন। জনাব এম এ আজিজ এখনও বাঙালি প্রতিরোধের সম্পর্কে জনগণকে নিরুৎসাহিত করতে তৎপর।

৮। ইয়াসির আরাফাত (ফিলিস্তিনের গেরিলা নেতা) অভিযোগ করেছেন যে, পাকিস্তানী সেনাপ্রধান গেরিলাদের বিপক্ষে সম্প্রতি যুদ্ধে জর্ডানিয়ান সৈন্যবাহিনীকে নিযুক্ত করেছেন। এই অভিযোগ এখানে সংবাদপত্রগুলোতে প্রকাশিত হয়েছে।

৯। পাকিস্তান ইয়াসির আরাফাতের অভিযোগে দুঃখ প্রকাশ করে বলেছে যে, ইসরাইলের বিপক্ষে মুসলিম দেশগুলোকে এটি নিছক সাহায্য করছিল।

১০। ইউ এন ত্রাণ কর্মকর্তাদের প্রেরনের ব্যাপারে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। উ থান্ট দৃঢ় ভাবে অস্বীকার করলেও প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে, কর্মকর্তাদের পর্যবেক্ষনের কাজে নিয়োজিত করা হয়েছে।

১১। লন্ডন থেকে জনাব মহিউদ্দিন আহমেদ এর দলত্যাগের খবর প্রকাশিত হয়েছে।

১২। আন্তারা ও অন্যান্য পত্রিকায় পাকিস্তান ও গ্রিসে ইউ এস ত্রানের বন্ধের খবর প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু বন্ধ করার জন্য প্রস্তুতকৃত বিলে একটি ত্রুটিপূর্ণ ধারা রাষ্ট্রপতি নিক্সন কে গ্রিসে ত্রাণ পাঠানোর অনুমোদন দিতে পারে। কিন্তু পাকিস্তানের ক্ষেত্রে এটি চূড়ান্ত।

প্রতিঃ জনাব মাকসুদ আলী

সংবাদ সহদুত

বাংলাদেশ মিশন

৯ সার্কাস এভিনিউ, কলকাতা-১৭,ইন্ডিয়া