কমিউনিস্ট বিপ্লবীদের পূর্ব বাংলা সমন্বয় কমিটি কর্তৃক স্বাধীন বাংলাদেশ স্থাপনের উদ্দেশ্যে গেরিলা যুদ্ধের আহ্বান

Posted on Posted in 2

<2.176.699>
 

শিরোনামসূত্রতারিখ
কমিউনিস্ট বিপ্লবীদের পূর্ব বাংলা সমন্বয় কমিটি কর্তৃক স্বাধীন বাংলাদেশ স্থাপনের উদ্দেশ্যে গেরিলা যুদ্ধের আহ্বানকমিউনিস্ট বিপ্লবীদের পূর্ব বাংলা সমন্বয় কমিটি৭ইমার্চ, ১৯৭১

 

 

আঘাত হানো

সশস্ত্র বিপ্লব শুরু কর

জনতার স্বাধীন পূর্ব বাংলা কায়েম কর

কমিউনিস্ট বিপ্লবীদের পূর্ব বাংলা সমন্বয় কমিটি

 

            পূর্ব বাংলার মাটি আজ রক্ত চায়। পুর্ব বাংলার কোটি কোটি মানুষ আজ স্বাধীনতার জন্য উন্মাদ হয়ে উঠেছে। গত তেইশ বছর ধরে পাকিস্থানের শাসকগোষ্ঠী পূর্ব বাংলার জনতার রক্ত চুষে খেয়েছে। পূর্ব বাংলার জনতা আজ রিক্ত, নিঃস্ব, পথের ভিখারী। বারংবার পূর্ব বাংলার মাটি শত শত শহিদের তাজা রক্তে লাল হয়েছে। পূর্ব বাংলার মানুষ যতবার তাঁদের মুক্তির জন্য সংগ্রামের ময়দানে নেমেছে, ততবারই শাসকগোষ্ঠী তাঁদের বর্বর পশু শক্তি মাধ্যমে তা দাবিয়ে দিয়েছে। সেনাবাহিনী হচ্ছে শাসকগোষ্ঠীর সকল ক্ষমতার উৎস। তাই আজ তারা সকল মুখোশ দূরে ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে তাঁদের দেওয়া জাতীয় পরিষদের অধিবেশনও মূলতুবী করে দিয়েছে। এটাই খুবই স্বাভাবিক। আমরা আগেও বারংবার বলেছি যে, নির্বাচনের মাধ্যমে আপোসে বাংলার স্বাধীনতা সবে না- আসবে না পূর্ব বাংলার কৃষক, শ্রমিক, মধ্যবিত্ত তথা সমগ্র জনতার মুক্তি। মুক্তির একমাত্র পথ সশস্ত্র বিপ্লব- ইতিহাস বারনবার এই শিক্ষাই আমাদের দিয়েছে।

 

বিপ্লবী জনতা!

 

          তাই আজ এক মুহূর্তও দেরি করার সময় নাই। পূর্ব বাংলার মাটি আজ রক্ত চায়। তাই পূর্ব বাংলার কৃষক গ্রামে গেরিলা যুদ্ধ শুরু কর। শাসকগোষ্ঠির হাত হতে ক্ষমতা ছিনিয়ে নাও। গ্রামে বাংলার স্বাধীনতার পতাকা উড়িয়ে দাও। মুক্ত এলাকা গঠন কর। পূর্ব বাংলার শ্রমিক, ছাত্র, তরুণ ও যুবকেরা হাতিয়ার তুলে নাও। শত শহীদের রক্ত ঋণ শোধ কর- রক্তের প্রতিশোধ নাও। সেনাবাহিনীকে খতম কর। এককেন্দ্রিক স্বৈরাচারী শাসকগোষ্ঠীর শোষণের হাতিয়ার রাষ্ট্র যন্ত্রকে আঘাতের পর আঘাত হানো- নিশ্চিহ্ন করে দাও। পূর্ব বাংলার জনতা আস, আমরা শপথ গ্রহণ করি, জাতীয় মুক্তির যে লড়াই আমরা আজ শুরু করব, যতদিন পর্যন্ত পূর্ব বাংলার স্বাধীনতা না আসবে, যতদিন এই স্বাধীন পূর্ব বাংলার বুকে কৃষক, শ্রমিক, মধ্যবিত্ত, ছোট ও মাঝারি ব্যবসায়ী তথা সমগ্র জনতার রাষ্ট্র নিশ্চিত না হবে, ততদিন আমাদের এই লড়াইয়ে শ্রান্তি নাই, ক্ষান্তি নাই। আস, আমরা ঘোষণা করি, হুঁশিয়ার! পূর্ব বাংলার জাতীয় মুক্তি সংগ্রামকে যারা বাঁধা প্রদান করবে কিংবা যারা তাকে মাঝপথে থামিয়ে দিতে চাইবে তাদের আমরা কিছুতেই ক্ষমা করবো না, সহ্য করবো না।

 

 

                                                                                                            জনতার সশস্ত্র বিপ্লব জিন্দাবাদ

                                                                                                  ‘স্বাধীন জনগণতান্ত্রিক পূর্ব বাংলা নিশ্চিত কর।’