খুলনায় শ্রমিক সমাবেশে মেজর জেনারেল রাও ফরমান আলী

Posted on Posted in 7

৭.২০২. ৫৭৯

শিরোনামসূত্রতারিখ
২০২। খুলনায় শ্রমিক সমাবেশে মেজর জেনারেল রাও ফরমান আলীদৈনিক পাকিস্তান১৫ নভেম্বর, ১৯৭১

 

খুলনায় শ্রমিক সমাবেশে মেজর জেনারেল রাও ফরমান আলী

ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের শিল্প উৎপাদন

বাড়ানোর আহ্বান

.

খুলনা, ১৪ই নভেম্বর (এপিপি)। পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নরের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল রাও ফরমান আলী শিল্প শ্রমিকদের প্রতি সব ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের শিল্পোন্নয়নের গতি বাড়ানোর আহবান জানিয়েছেন। জেনারেল ফরমান আলী আজ খালিশপুর হাউসিং ষ্টেট ময়দানে পূর্ব পাকিস্তান লেবার ফেডারেশন আয়োজিত এক বিরাট শ্রমিক সমাবেশ ভাষণ দিচ্ছিলেন।

তিনি শ্রমিকদের প্রতি উৎপাদন বৃদ্ধির পরামর্শ দিয়েছিন। কারণ উৎপাদন বাড়লে শুধু দেশ নয় শ্রমিক মালিক সবাই উপকৃত হবে, তিনি বলেন, বর্তমান সরকার সব সময় শ্রমিকের কল্যাণ চেয়েছে। ১৯৬৯ সালে সরকার শ্রমিকদের বেতন ৮৫ টাকা থেকে ১২৫ টাকায় বৃদ্ধি করেছেন। জেনারেল ফরমান আলী বলেন, মিলগুলোতে উৎপাদন না বাড়লে এবং শান্তি না থাকলে মালিক পক্ষ কর্মসংস্থানও বাড়াতে পারবেন না।

শিল্পে ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, শ্রমিকদের রাজনৈতিক ট্রেড ইউনিয়ন তৎপরতায় লিপ্ত হওয়া উচিৎ নয়, কারণ তাতে তাদের ভালো হবে না। তিনি বলেন, সুস্ত ট্রেড ইউনিয়ন দেশে আদর্শ শ্রমিক বাহিনী গড়ে তুলতে সাহায্য করে, যা দেশের আর্থিক দিক দিয়ে একটি উন্নত দেশে পরিণত করার সহায়ক হবে।

ভারতের যুদ্ধের হুমকি প্রসঙ্গে তিনি বিপুল হর্ষধনির মধ্যে বলেন, আমাদের সেনাবাহিনী আক্রমণ প্রতিহত করার জন্য প্রস্তুত। বাইরের কোন শক্তি পাকিস্তানের সংহতি ও অখণ্ডতা বিনষ্ট করতে সক্ষম হবে না। জেনারেল বলেন, খুলনা, চট্টগ্রাম ও অন্যান্য স্থানের যে উন্নতি ঘটেছে, তা পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার ফলেই সম্ভব হয়েছে। অথচ স্বাধীনতার আগে এসব এলাকা হিন্দুদের শোষণের চরণভূমি হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে।

ভারতের তথাকথিত ‘বাংলাদেশ’ প্রচারণা সম্পর্কে জেঃ ফরমান আলী ভারতীয় কর্তৃপক্ষের প্রতি পূর্ব পাকিস্তানের ক্ষতি না করে পশ্চিমবঙ্গকে স্বাধীনতা প্রদানের আহ্বান জানান।