জেনারেল ইয়াহিয়ার বেতার ভাষণঃ ভারতের সঙ্গে যুদ্ধ ঘোষণা

Posted on Posted in 7

৭.১১৫.২৫৪

শিরোনামসূত্রতারিখ
১১৫। জেনারেল ইয়াহিয়ার বেতার ভাষণঃ ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণাডন-করাচী ৫ ডিসেম্বর৪ ডিসেম্বর , ১৯৭১

 

জাতির উদ্দ্যেশ্যে প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়ার ভাষণ

আমাদের শত্রু আবার আমাদের বিরুদ্ধে গিয়েছে। ভারতীয় আর্মি পাকিস্তানের বিভিন্ন প্রান্তে সর্বশক্তি দিয়ে আক্রমন শুরু করেছে। পাকিস্তানের প্রতি ভারতের শত্রুতা ও ঘৃণা সম্পর্কে পৃথিবীর সকলেই অবগত আছেন। পাকিস্তানকে দুর্বল ও ধ্বংস করাই তার প্রধান উদ্দ্যেশ্য। আমাদের প্রতি ভারতের সর্বশেষ ও মারাত্মক হানাটি ছিল সবচেয়ে বড় এবং আমাদের উপর চূড়ান্ত আক্রমন। আমরা ধৈর্য্যের শেষ সীমায় এসে পৌছেছি। শত্রুদের উপর এখন চূড়ান্ত আক্রমন করার সময় এসেছে। ১২ কোটি মুজাহিদ, আপনারা সবসময় আল্লাহ’র রহমত পেয়ে থাকেন। আপনাদের অন্তর নবীর প্রতি ভালবাসায় পূর্ণ। আমাদের শত্রুরা আরো একবার আমাদের আত্মসম্মান এর প্রতি আঘাত হেনেছে। শত্রুদের প্রতি আমাদের লৌহকঠিন মনোভাবে সম্মান ও বেচে থাকার অভিপ্রায় নিয়ে একযোগে প্রতিরোধ করতে হবে। আপনারা ন্যায় ও সত্যের পক্ষে আছেন। সাহস ও দৃঢ় সংকল্পে উদ্বুদ্ধ হয়ে মিথ্যার বিরুদ্ধে সর্বশক্তি দিয়ে যুদ্ধ শুরু করুণ।

 

শত্রুকে জানিয়ে দিন নিজ মাতৃভূমিকে রক্ষার তাগিদে প্রতিটি পাকিস্তানী মৃত্যর জন্যে তৈরি আছে। অভূতপূর্ব বীরত্ব ও সাহসিকতা প্রদর্শনের মাধ্যমে আমাদের সাহসী জওয়ানেরা অগ্রসরমান শত্রুদেরকে আটকে দিয়েছেন। ইসলামে গাজী’দের দৃষ্টান্ত অনুসরণ করে আমাদের জওয়ানেরা, শত্রুরা আমাদের চাইতে শক্তিশালী হলেও তাদের বিরুদ্ধে অটলভাবে অকুতোভয়ে যুদ্ধ করে যাচ্ছেন। তারা জানেন যে, বিজয় শুধুমাত্র সংখ্যা বা সরঞ্জাম এর উপর নির্ভর করে না। বরং নির্ভর করে বিশ্বাস ও আদর্শের শক্তি এবং সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছার উপর।

 

আমাদের সেনারা শুধুমাত্র পরাজিত করার প্রতিজ্ঞাবদ্ধই নয়, বরং তারা শত্রুদেরকে শত্রুসীমায় ধাওয়া করবে এবং তাদের ধ্বংসও করবে। আল্লাহর ইচ্ছায় আমাদের সেনাদের সিংহ এর মত সাহস রয়েছে যার ফলে তারা শত্রুদের দুইভাগে বিচ্ছিন্ন করে ফেলবে। আল্লাহর ইচ্ছায় এবার আমরা আগের চাইতেও আরো শক্তিশালী ভাবে আক্রমন করব।

 

আমরা এমন একটি যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছি যেখানে আমাদের শত্রুরা ধূর্ত ও নিষ্ঠুর। আমরা আমাদের দেশকে যে কোন মুল্যে, সর্বশক্তি দিয়ে হলেও রক্ষা করব। আমরা নিশ্চিত দেশের অখণ্ডতা রক্ষার এই যুদ্ধে আমরা সকল বন্ধু ও বন্ধুপ্রতীম রাষ্ট্রগুলোর সাহায্য-সহযোগীতা পাব, যারা সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে থাকবেন। তারা সন্দেহাতীতভাবে ভারতীয় আক্রমণের নিন্দা জানাবেন এবং আমাদের রাষ্ট্র রক্ষা করার এই চেষ্টাকে সমর্থন দিবেন।

 

আমার প্রিয় দেশবাসী ও প্রিয় আর্মি, নেভী ও বিমানবাহিনীর মুজাহিদগণ, দেশের এমন পরিস্থিতিতে জাতিকে নির্দিষ্ট লক্ষ্যের উদ্দ্যেশ্যে নক্ষত্রের মত উজ্জ্বল হয়ে থাকতে হবে। সাহস ও বিশ্বাসের ক্ষমতার মাধ্যমে সকল বাধা পেছনে ফেলে অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জন করতে হবে।

 

আপনাকে ধীর-স্থির হতে হবে, আপনাদের প্রত্যেককেই দেশকে রক্ষার জন্যে কাজ করে যেতে হবে। জাতীয় ঐক্য রক্ষা করুন এবং মনে রাখবেন আল্লাহ বলেছেন- আল্লাহ তাকেই প্রতিদান দেন যে নিজে চেষ্টা করে।

 

সামনে এগিয়ে যান। আল্লাহু আকবর বলে শত্রুকে সর্বোচ্চ প্রতিহত করুণ। আল্লাহ আমাদের সাথে আছেন। পাকিস্তান পায়েন্দাবাদ।