টাঙাইলের মুক্তিবাহিনীর একটি ইশতেহার

Posted on Posted in 11
শিরোনামউৎসতারিখ
৫২) ইশতোর১১ নং সেক্টরের দলিলপত্র

 

২৪ অক্টোবর ১৯৭১

 

কম্পাইল্ড বাইঃ নীলাঞ্জনা অদিতি

<১১, ৫২, ৫১১>

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

ঢাকা টাঙ্গাইল ময়মনসিংহ ও পাবনা জেলা বেসামরিক দপ্তর

|| ঈশতেহার ||

 

প্রিয় দেশবাসী:

 

আসসালামু আলাইকুম। আপনাদের জানাচ্ছি পবিত্র মাহে রমজানের মোবারকবাদ। সম্প্রতি মুজিবনগর থেকে ফিরে আসার পর আমার সামনে নতুন কতগুলো সমস্যা এসে দাঁড়িয়েছে। সেই সমস্যার আলোকে আমি আপনাদের কাছে মুক্তিবাহিনীর তরফ থেকে নির্দেশ দিচ্ছি।

 

১ ) আপনারা যারা দেশকে ভালবাসেন কিন্তু জালেম দস্যু বিদেশী সৈন্যদের আওতায় আছেন তারা যেভাবে পারেন বাংলাদেশের স্বার্থে কাজ করুন প্রয়োজন হলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন । আমরা আপনাদের সাথে আছি।

 

২ ) যারা দীর্ঘদিন ধরে  বাংলাদেশের স্বাধীনতা পরিপন্থী কাজ করছেন কিন্তু পরবর্তী বাস্তবতা বুঝতে পেরে বিবেকের দংশনে নিজেদের অপরাধ বুঝতে পেরেছেন তারা আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। যত অন্যায় ই করে থাকুন আমরা সহানুভূতির সঙ্গে তা বিবেচনা করব।

 

৩) যারা এখনো সরকারী চাকুরি করছেন তারা নিজ নিজ স্থান থেকেই বাংলাদেশের পক্ষে কাজ করে যান এবং উপযুক্ত সময়ে মুক্তিবাহিনীর নির্দেশে আপনারা এক যোগে কাজ থেকে সরে পরবেন।

 

৪) বাংলাদেশের কৃষক শ্রমিক চাকুরীজীবী প্রত্যেকেই যেভাবে পারেন আমাদের সাহায্য পৌছে দিন।

 

৫ ) যারা রাজাকারে ভর্তি হয়েছেন তাদের কাছে সবিশেষ অনুরোধ আপনারা আমাদের সাথে যোগাযোগ করে একযোগে আমাদের সাথে স্বাধীনতা আন্দোলনে শরীক হন।

 

৬ ) স্বেচ্ছায় যে কোন আত্মসমর্পণকারীর সঙ্গে সম্মানজনজক ব্যবহার করা হবে।

 

৭ ) লাইসেন্সসহ প্রতি মণ পাটের জন্য এক টাকা খাজনা দিয়ে যে কোন দিকে পাট বহন করার অনুমতি পাবেন।

 

৮ ) জমি সংক্রান্ত ব্যাপারে নির্দেশ হল ২৫ শে মার্চের আগে যে জমি যার দখলে ছিল তারই থাকবে।

 

৯ ) ( ক) পাহাড়ি অঞ্চলে নতুন করে রিজার্ভ ভাঙ্গা চলবে না।

 

(খ) যে সমস্ত জমি চার বতসর আগে বানানো হয়েছে সেগুলো এখন আবাদযোগ্য তবে জমিতে গাছ থাকলে গাছের পাতাও কাটা চলবে না।

 

(গ) চার বছর আগে যারা রিজারভ ভেঙ্গেছেন এবং একেবারে নিঃসম্বল দরিদ্র ঘরবাড়িসহ পাঁচ বিঘে জমি তাদের বহাল থাকবে।

 

আশা করি উপরোক্ত নির্দেশাবলি আপনারা মেনে চলবেন। খোদা হাফেজ। জয় বাংলা।      

 

স্বাঃ কাদের সিদিকী                                                                                                                                      

২৪-১০-৭১