পাকিস্তান ভারতের কাছে প্রতিবাদ করেছে

Posted on Posted in 7

৭.০৪.২১

শিরোনামসুত্রতারিখ
৪। পাকিস্তান ভারতের কাছে প্রতিবাদ করেছেপূর্বদেশ।

উদ্ধৃতিঃ পাকিস্তান টাইমিস (লাহোর)

৩১ মার্চ, ১৯৭১

 

পাকিস্তান ভারতের কাছে প্রতিবাদ করেছে

২৭শে মার্চঃ- পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত এখন যে ভিত্তিহীন ও উদ্দ্যেশ্যপ্রণোদিত প্রচার অভিযান চালাচ্ছে, পাকিস্তান এ প্রচারণা বন্ধের দাবী জানিয়েছে। এদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ থেকেও বিরত থাকতে নয়াদিল্লীর প্রতি দাবী জানানো হয়েছে।

        পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নয়াদিল্লী বেতারের বর্তমান উদ্দ্যেশ্যমূলক প্রচারণায় পাকিস্তান দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে উদ্দ্যেশ্যমূলক ও নগ্ন হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে ভারতের কাছে তীব্র প্রতিবাদ করেছে।

আজ সকালে ভারতীয় হাই কমিশনার মিঃ বি,কে,আচার্যকে পররাষ্ট্র দপ্তরে ডেকে পাঠানো হয়।

হাই কমিশনারকে জানানো হয় যে, ভারতীয় পার্লামেন্টে পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে আলোচনা করায় পাকিস্তান খুবই আপত্তি জানাচ্ছে। গতরাতে ভারতীয় বেতার বলেছে যে, পার্লামেন্টারী বিষয়ের মন্ত্রী, মিঃ রাজ বাহাদুর পার্লামেন্টকে জানিয়েছেন যে, তাঁর সরকার খুব শিগগিরই পূর্ব পাকিস্তান সম্পর্কে বিবৃতি দেবেন।

হাই কমিশনারকে বলা হয়েছে যে, দিল্লীর এসব খবর আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে অত্যন্ত বিপজ্জনক ঘটনার সৃষ্টি করবে। তাঁকে আরও বলা হয়েছে যে, ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোন প্রকার হস্তক্ষেপকে পাকিস্তান সতর্কতার সাথে এড়িয়ে গেছে, একথা নয়াদিল্লীর মনে থাকা উচিত।

পশ্চিম বাংলা, নাগাভূমি ও মিজোল্যান্ডের পরিস্থিতির ফলে পাকিস্তানে ব্যাপক মোহাজের এসেছে এবং তাতে করে দেশের আইন-শৃংখলা পরিস্থিতিতেও অসুবিধার সৃষ্টি হয়েছে, এসব ঘটনা সত্ত্বেও এই নীতি মেনে চলা হয়েছে।

ভারতীয় হাই কমিশনারকে এটাও বলা হয়েছে যে, নয়াদিল্লী সরকারের একটা সরকারী প্রতিষ্ঠান হলো ভারতীয় বেতারকেন্দ্র। এ থেকেই পূর্ব পাকিস্তান সম্পর্কে অত্যন্ত উদ্দেশ্যমূলক, অতিরঞ্জিত ও প্ররোচনামূলক সংবাদ প্রচার করছে। এটা অত্যন্ত আশ্চর্যের বিষয় যে, একদিকে ভারতীয় সংবাদ সরবরাহ প্রতিষ্ঠান বলছে যে, তাদের পূর্ব পাকিস্তানের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানবার কোন যোগসূত্র নেই এবং অন্যদিকে পাকিস্তানকে হেয় প্রতিপন্ন করার মানসে পরিকল্পিত বিস্তারিত খবর প্রচার করছে।

পাকিস্তানের অভ্যন্তরীন বিষয়ে ভারত কেমন করে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে এটা দেখানোর জন্যে এ প্রসংগে ভারত সরকারকে লিখিত ১৩,২০ ও ২৪ শে মার্চ প্রেরিত পাকিস্তানী নোটের প্রতি ভারতীয় দূতের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। এবং সংবাদপত্র ও অন্যান্য প্রমাণও হাজির করা হয়।

 

–পাকিস্তান টাইমস (লাহোর)