পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্ত সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে

Posted on Posted in 7

৭.১৬১.৪৮০                                                  

শিরোনামসূত্রতারিখ
১৬১। পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্ত সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে – জেনারেল নিয়াজীদৈনিক পাকিস্তান১১ জুলাই, ১৯৭১

 

জেনারেল নিয়াজীর চট্টগ্রাম সফরঃ গোটা পূর্বাঞ্চলীয়

সীমান্ত সেনাবাহিনীর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে

 

   পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডের কমান্ডার লেঃ জেঃ এ এ কে নিয়াজী গতকাল শনিবার চট্টগ্রাম ও পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকায় সেনাবাহিনী পরিদর্শন করেন বলে এপিপির খবরে প্রকাশ।

 

   চট্টগ্রাম পৌঁছলে সেনাবাহিনী ও নৌ-সেনাবাহিনীর সিনিয়র অফিসাররা জেঃ নিয়াজীকে সংবর্ধনা জানান। পরে স্থানীয় কমান্ডার তার কাছে এলাকার আইন-শৃংখলার পরিস্থিতি এবং সীমান্ত বরাবর প্রতিরক্ষা কাজে নিয়োজিত সেনাবাহিনীর কার্যক্রমের বিবরণ দেন। আইন-শৃংখলার কথা বলতে গিয়ে স্থানীয় কমান্ডার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে জনসাধারণের সহযোগিতার কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন।

 

   জেনারেল নিয়াজীকে জানান হয় যে, অনুপ্রবেশের সব সম্ভাব্য স্থল ও নৌ-পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকাকে সম্পূর্ণ মুক্ত  করা হয়েছে এবং পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্ত বরাবর গোটা এলাকা এখন সেনাবাহীর কার্যকরী নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

 

   চট্টগ্রাম থেকে জেঃ নিয়াজী হেলিকপ্টারযোগে দোহাজারী, কাপ্তাই ও রাঙ্গামাটি যান। দোহাজারীতে এক বিরাট জনতা তার চারপাশে সমবেত হয়ে দেশাত্মবোধক শ্লোগান দেয়। তিনি তাদের সাথে করমর্দন করেন এবং এলাকায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ফিরিয়ে আনা ও বজায় রাখায় তাদের প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন।

 

   পরে জেঃ নিয়াজী কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে তার কাছে ধ্বংসাত্মক কাজের হাত থেকে এই গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রটিকে রক্ষার ব্যবস্থাদি বিশ্লেষণ করা হয়।

 

   তাকে জানান হয় যে সব শ্রমিকরাই কাজে যোগদান করেছেন এবং বর্তমানে সেখানে স্বাভাবিক বিদ্যুৎ উৎপাদনের কাজ চলছে।

 

   রাঙ্গামাটিতে জেঃ নিয়াজীকে জানান হয় যে উপজাতীয়রা দুষ্কৃতকারীদের অনুসরণ করে ধরার সাহায্য করছে এবং ফৌজী প্রধানরা কর্তপক্ষের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রাখছেন। কয়েক জায়গায় তারা নিজেরাই দুষ্কৃতকারীদের ধরে তাদের অস্ত্রশস্ত্র আটক করেছে।

 

   জেনারেল নিয়াজীর এই সফরকালে চাকমা প্রধান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে নির্বাচিত জাতীয় পরিষদ সদস্য রাজা ত্রিদিব রায়ও উপস্থিত ছিলেন।

 

   অপরাহ্নে জেনারেল নিয়াজী ঢাকা ফিরে আসেন।