প্রতিরক্ষা অর্ডিন্যান্স ও প্রতিরক্ষা আইন বলবৎ

Posted on Posted in 7

৭.১১১.২৩৫ ২৩৬

শিরোনামঃ ১১১। প্রতিরক্ষা অর্ডিন্যান্স ও প্রতিরক্ষা আইন বলবৎ

সূত্রঃ দৈনিক পাকিস্তান

তারিখঃ ১ ডিসেম্বর, ১৯৭১

.

সমগ্র দেশে প্রতিরক্ষা অর্ডিন্যান্স ও প্রতিরক্ষা আইন একযোগে বলবৎ

 

রাওয়ালপিন্ডি, ৩০শে নভেম্বর (পিপিআই)।- সারাদেশে জরুরী অবস্থা ঘোষনার সাথে সাথে ১৯৭১ সালের পাকিস্তান প্রতিরক্ষা অর্ডিন্যান্স ও পাকিস্তান প্রতিরক্ষা আইন একযোগে বলবত করা হয়েছে। উক্ত আইনের বলে জনসাধারনের নিরাপত্তার ও দেশের প্রতিরক্ষার তাগিদে বিশেষ অপরাধের জন্যে শাস্তি বিধানের ব্যবস্থা থাকিবে। উপরোক্ত আইনের আওতাভুক্ত মূল বিষয়গুলো নিম্নে প্রদত্ত হইল:

 

(ক) সশস্ত্র বাহিনীর নিরাপত্তা ও সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা থাকিবে। (খ) সশস্ত্র বাহিনীর অন্তর্গত বিভিন্ন শাখায় নিয়োজিত লোকজনদের শিক্ষা অথবা স্বাস্থ্য ও শৃঙ্খলা রক্ষার ব্যবস্থা থাকিবে। (গ) স্টেট ব্যাংক অফ পাকিস্তান সার্ভিসে নিযুক্ত অথবা এই সার্ভিসে যোগদানের ইচ্ছুক ব্যক্তিদের রাষ্ট্রানুগত্যের প্রতি বিরোধিতা করা চলিবে না। (ঘ) শত্রুদের সাহায্য করা চলিবে না, অথবা সামরিক তরপরতা বা যুদ্ধ পরিচালনায় কোন অসুবিধা সৃষ্টি করা চলিবে না।

 

(ঙ) মালিকানা, ব্যবস্থাপনা বা দলীয় স্বত্ব, শত্রু সম্পত্তির বাজেয়াপ্তির পরিচালনা, রক্ষণাবেক্ষণ বা হস্তান্তর করা চলিবে না। (চ) গুজব অথবা কতৃপক্ষীয় সূত্রের বরাত ছাড়া যে কোন অসন্তোষ বা ভীতির সৃষ্টি করিতে পারে যে, যেগুলো বিদেশের সাথে পাকিস্তানের সম্পর্কের অবনতি ঘটাইতে পারে, যেগুলো পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে নিরাপত্তা, জনগনের নিরাপত্তা অথবা সুযোগ-সুবিধা বিঘ্নিত করিতে পারে সেসকল গুজব ও সংবাদ প্রচার করা নিষিদ্ধ থাকিবে।

 

(ছ) যে সকল অঞ্চলে প্রয়োজন মনে করা হইবে সরকার সেই সকল অঞ্চলের জনগনের কর্তব্যকর্ম নির্ধারণ করিতে পারিবেন।

 

(জ) জল-স্থল পথ অথবা বিমান পথের সকল গুরুত্বপূর্ণ স্থান যেমন বন্দর, ডকইয়ার্ড, বিমানবন্দর, রেলপথ ও নৌপথ এবং অন্য সকল প্রকার যানবাহনের চলাচলের পথ সরকার কতৃক নিয়ন্ত্রিত হইবে।

 

(ঝ) ডাক ও তার বিভাগ সরকারী নিয়ন্ত্রনে থাকিবে।

 

(ঞ) এই আইনের বলে অধিকারপ্রাপ্ত ব্যক্তি যে সকল লোক বিদেশের সাথে পাকিস্তানের সম্পর্কের অবনতি ঘটাইবে, জনগনের নিরাপত্তা এবং সুখ সুবধা বিঘ্নিত করিবে, দেশের কোন অংশের নিরাপত্তার প্রতি সন্দেহভাজন হইবে অথবা যাহারা দেশের অভ্যন্তরীণ চাকুরী বা যোগাযোগ ব্যবস্থার বিঘ্ন ঘটাইবে সেই সকল ব্যাক্তিকে আটক করিতে পারিবেন।

 

(চ) পাকিস্তানের প্রত্যাগত বা পাকিস্তান হইতে বিদেশ গমনকারী সকল ব্যাক্তি এবং যে সকল বিদেশী পাকিস্তানে বসবাস করেন অথবা পাকিস্তানে ছিলেন তাদের গতিবিধি নিয়ন্ত্রিত করা হইবে।

 

(ছ) খবর ও তথ্য পরিবেশন সরকারের নিয়ন্ত্রণ এ থাকিবে।

 

(জ) সরকার ইচ্ছানুযায়ী ডাক, তার ও বেতার যোগাযোগ নিয়ন্ত্রন করিবে। উক্ত আইনের বলে বিভন্ন অপরাধের জন্যে ৫ বতসর কারাদণ্ড হইতে মৃত্যুদণ্ড দেয়া যাইতে পারে। ইহা ছাড়া অর্থদণ্ড অথবা একই সাথে অর্থদন্ড ও কারাদণ্ড দুই-ই দেওয়া যাইতে পারে।