বাংলাদেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রশ্নের জবাবে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দফতরের জবাব

Posted on Posted in 4

<৪,১৬,২৫>

অনুবাদকঃ কাজী সাদিকা নূর

শিরোনামসূত্রতারিখ
১৬। বাংলাদেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রশ্নের জবাবে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দফতরের জবাবজনাব এ, আর, খানের প্রতি ব্রিটিশ এমপির চিঠি।২২ এপ্রিল, ১৯৭১

 

এমপি ফ্র্যাংক জুডের পক্ষ থেকে

২২ এপ্রিল, ১৯৭১

জনাব খান,

আমি আপনার এবং অন্যদের দ্বারা স্বাক্ষরিত চিঠি ফরেইন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অ্যাফেয়ার্সের রাষ্ট্রসচিবের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছি এবং তার উত্তর এইখানে সংযুক্ত করে দিয়েছি।

আশংকা করছি যে, এর মাধ্যমে ঘটনাটি সঠিকভাবে প্রকাশ পায় নি, কিন্তু আপনি নিশ্চিত থাকেন যে, আমার সহকর্মীরা এবং আমি এই বিষয়ে নজর রাখছি।

আপনার একান্ত অনুগত

এস ডি/

জনাব এম এ রাজ্জাক খান

৬ ব্রিটানিয়া রোড, সাউথসি

পোর্টসমাউথ পি০৫ ১এস এন

____________________________

ফরেন অ্যান্ড কমনওয়েলথ অফিস

লন্ডন এস ডাব্লিউ ১

১৯ এপ্রিল, ১৯৭১

উপমন্ত্রী কর্তৃক প্রেরিত

জনাব ফ্র্যাংক,

এলেক ডগলাস হোমকে আপনি গত ৬ এপ্রিল, আপনার কয়েকজন সংগঠক কর্তৃক স্বাক্ষরিত পূর্ব পাকিস্তান বিষয়ক যে চিঠিটি পাঠিয়েছিলেন, তিনি সেটির উত্তর দিতে আমাকে অনুরোধ করেছেন। আপনি জানেন যে, প্রতিমন্ত্রী গত ৫ এপ্রিল পাকিস্তানের অবস্থা নিয়ে হাউসে বক্তব্য পেশ করেছেন। আমি সেটির একটি প্রতিলিপি এইখানে সংযুক্ত করে দিয়েছি, যা আপনি জনাব রাজ্জাককে পাঠিয়ে দিতে পারেন।

আপনার সংগঠকদের তোলা কিছু প্রশ্নে আমি কেবলমাত্র নিম্নোক্ত বক্তব্যগুলোই প্রকাশ করতে পারি। পূর্ব পাকিস্তানে যে দ্বন্দ্ব চলছে তা অবশ্যই পাকিস্তান সরকারের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার। সুতরাং, ব্রিটিশ সরকারের এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা কিংবা জাতিসংঘকে অনুরোধ করা উচিত হবে না। উপরন্তু, আমার মনে হয় আমরা পাকিস্তান সরকার ও রেড ক্রস সোসাইটির আন্তর্জাতিক লিগের সম্পর্কের মধ্যে  হস্তক্ষেপ করতে পারি না, কিন্তু পূর্ব পাকিস্তানের দুর্দশা দূর করার ক্ষেত্রে তাদের মানবিক প্রচেষ্টায় কোন বাঁধা দেয়া হলে ব্রিটিশ সরকার তৎক্ষণাৎ পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত।

বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়ার ক্ষেত্রে বর্তমানে কোন রকম সম্ভাবনা নেই এবং ব্রিটিশ সরকার ইসলামাবাদে পাকিস্তান সরকারকে স্বীকৃতি দিচ্ছে।

আমি আপনার সংগঠকদের চিঠি ফেরত পাঠাচ্ছি।

একান্ত

অ্যান্থনি রয়্যাল

ফ্র্যাঙ্ক জুড, আইনিজীবী-সংসদ সদস্য

হউস অফ কমনস

লন্ডন, এস ডব্লিউ১