বাংলাদেশের মানুষের আন্দোলনকে কোন শক্তিই থামাতে পারবে না বলে শেখ মুজিবের ঘোষণা

Posted on Posted in 2

<2.156.645>

 

শিরোনামসুত্রতারিখ
বাংলাদেশের মানুষের আন্দোলনকে কোন শক্তিই থামাতে পারবেন না বলে শেখ মুজিবের ঘোষণামর্নিং নিউজ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ১৯৭১

 

কোন শক্তিই আর বাঙ্গালীকে দাবায়া রাখতে পারবে না

১৭ই ফেব্রুয়ারী ১৯৭১ এ ঢাকায় শেখ মুজিবের বিবৃতি

আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ মুজিবুর রহমান গতকাল শহীদ দিবসের একটি অনুষ্ঠানে বলেন, ছাত্র, চাকুরীজীবী সহ বাংলাদেশের মানুষ “শিখে গেছে কিভাবে নিজের জীবন বিসর্জন দিতে হয় এবং পৃথিবীর কোন শক্তিই আর তাদের অধীন করে রাখতে পারবেনা।

গতকাল সন্ধ্যায় ইঞ্জিনিয়ার ইন্সটিটিউটে ঢাকা নগর আওয়ামীলীগ কর্তৃক ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে শহীদের স্মরনে আয়োজিত স্মরণসভায় শেখ মুজিবুর রহমান ভাষণ দেন।

আওয়ামীলীগ প্রধান, যিনি উক্ত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন; বলেন, আমাদের শহীদদের রক্ত আমাদের একতাবদ্ধ, আত্মনির্ভরশীল এবং আমাদের সাহিত্য ও সংস্কৃতি সচেতন হতে শিখিয়েছে। জীবন উৎসর্গ করতে না শিখলে কোন জাতি সফল হতে পারে না।

১৯৫২ সালের বাংলা ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস স্মরণ করে শেখ মুজিব বলেন, এটা নিছক একটি ভাষা আন্দোলন ছিল না। এদেশের সাংস্কৃতিক স্বাধীনতা আদায়ের প্রশ্নও এর সঙ্গে যুক্ত ছিল। তিনি পুনর্ব্যক্ত করেন যে, বাঙালিদের এই সাংস্কৃতিক স্বাধীনতা উপলব্ধি করতে সক্ষম হওয়া পর্যন্ত এই আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে। কেউ এমনকি বন্দুক দিয়েও তা বন্ধ করতে পারবে না,  তিনি মনে করিয়ে দিলেন। কখনো ভুলবো না

তার সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় শেখ মুজিবুর রহমান বলেন, যতদিন বাঙালি বেঁচে থাকবে ততদিন বাংলার সংস্কৃতি অব্যাহত থাকবে। “২১শে ফেব্রুয়ারি আমরা কখনো ভুলবো না”।

শহীদদের রক্ত যেন বৃথা যেতে না পারে, সে ব্যাপারে সচেতন হবার জন্য তিনি (আওয়ামী লীগ প্রধান) জনগণকে আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন নিখিল পাকিস্তান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এএইচএম কামরুজ্জামান সহ আওয়ামীলীগের জাতীয় ও প্রাদেশিক পরিষদের সদস্যবৃন্দ, যারা ঢাকায় উপস্থিত ছিলেন।