বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম সম্পর্কে সংক্ষেপে প্রতিবেদন

Posted on Posted in 4

<৪,২৩,৪১>

অনুবাদকঃ দিব্য কান্তি দত্ত

শিরোনামসূত্রতারিখ
২৩। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত প্রতিবেদন‘বাংলাদেশ এ্যাসোসিয়েশন স্কটল্যান্ড’ এর প্রচারপত্রএপ্রিল, ১৯৭১

 

বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামকে সমর্থন করুন

পশ্চিম পাকিস্তান কর্তৃক বাংলাদেশকে শোষণের ২৪ বছর

 

বাংলাদেশ                 পশ্চিম পাকিস্তান

জনসংখ্যা          ৭.৫ কোটি                ৫.৫ কোটি

মাথাপিছু আয়            ১৫ ইউরো                ৪৫ ইউরো

বৈদেশিক রপ্তানি আয়    ৬০%                     ৪০%

বাজেট বরাদ্দ             ৩০%                     ৭০%

চাকুরীক্ষেত্র        ২০%                      ৮০%

পাকিস্তান সেনাবাহিনী    ১০%                      ৯০%

বৈদেশিক সাহায্য বণ্টন  ২০%                      ৮০%

__________________________________________________________

!      !      !      !      !      !      !      !      !      !

 

বাংলাদেশ জাতীয় রাজধানী, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং বিমানবাহিনীর সদর দফতর, কেন্দ্রীয় সরকারী অফিস, ব্যাংক এবং ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির প্রধান কার্যালয়- পশ্চিম পাকিস্তানে যা ভারতের প্রায় ১,০০০ কিলোমিটার অঞ্চল দ্বারা বাংলাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন।

 

ডিসেম্বর ১৯৭০: প্রথম সাধারণ নির্বাচন          জ়াতীয় সংসদ আসন

আওয়ামী লীগ দল (শেখ মুজিব)                          ১৬৭

পাকিস্তান পিপল’স পার্টি (ভূট্টো)                          ৮১

অন্যান্য দল                                   ৬৫

                                              ______

মোট                                           ৩১৩

২ মার্চ, ১৯৭১: পশ্চিম পাকিস্তানি নেতাদের সাথে আঁতাত করে পাকিস্তানি রাষ্ট্রপতি জেনারেল ইয়াহিয়া খান জাতীয় সংসদের অধিবেশন বাতিল করে দেন।

 

১৫-২৪ মার্চ, ১৯৭১: মুজিবের সাথে ইয়াহিয়া এবং ভূট্টোর রাজনৈতিক আলোচনা চলাকালীন স্বায়ত্ত্বশাসনের দাবি দমন করার জন্য পশ্চিম পাকিস্তান থেকে সৈন্য বাংলাদেশে প্রবেশ করে।

২৫ মার্চ, ১৯৭১: বর্বর পশ্চিম পাকিস্তানি সৈন্যরা:

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবাসগুলোতে মধ্যরাতে ঘুমন্ত অবস্থায় শিক্ষার্থীদের ওপরে গোলাবর্ষণ করে। হাজার হাজার শিক্ষার্থীকে মেরে ফেলে।
  • পত্রিকা অফিস এবং হাসপাতালগুলোতে আগুন ধরিয়ে দেয়। 
  • নিরস্ত্র জনগণের বিরুদ্ধে ট্যাঙ্ক এবং মেশিনগান ব্যবহার করে এবং রাজধানীর ঘনবসতিপূর্ণ এলাকাগুলো ধ্বংস করে দেয়।
  • সেইরাতে ঢাকায় ৭,০০০ মানুষকে হত্যা করে। 

২৬ মার্চ, ১৯৭১:

  • সাড়ে সাত কোটি জনতার প্রতিনিধিত্ব করা ‘আওয়ামী লীগ’-কে নিষিদ্ধ করা হয়। এই দলের প্রধান এবং ‘নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী’-কে ইয়াহিয়া খান এক মাস আগে বিশ্বাসঘাতক হিসেবে প্রচার করে।
  • ইতিহাসে প্রথমবারের মত অধিকাংশ প্রদেশ স্বাধীনতা ঘোষণা করতে বাধ্য হয়।
  • পাশবিকতাকে আড়াল করার জন্য পশ্চিম পাকিস্তান সরকার আন্তর্জাতিক সাংবাদিকদের বিতাড়িত করে।
  • বুদ্ধিজীবি এবং বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদেরকে (কেবল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েই কমপক্ষে ৫০ জন শিক্ষককে তাঁদের পরিবারের সামনে হত্যা করা হয়) হত্যা করা হচ্ছে প্রায় সাড়ে সাত কোটি বাঙালিকে দাবিয়ে রাখার জন্য।

২৭ মার্চ, ১৯৭১:

  • ‘আন্তর্জাতিক রেডক্রস’-কে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়নি।
  • পশ্চিম পাকিস্তানি সৈন্যরা বোমাবাজি, গোলাবর্ষণ এবং বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়ার পাশাপাশি সুকৌশলে নিষ্পাপ জনগণকে হত্যা করার কাজ অব্যাহত রাখল।
  • পাকিস্তান সরকার দেশটিকে দুর্ভিক্ষে নিমজ্জিত করতে চাইছে।

 

“পশ্চিম পাকিস্তানি সেনাবাহিনী আনুমানিক ত্রিশ লক্ষ মানুষকে হত্যা করেছিল।”

 

বাংলাদেশ এ্যাসোসিয়েশন স্কটল্যান্ড

১৫ এলডন, সেইন্ট গ্লাসগো সি ৩। টেলিফোন: ০৪১-৩৩৯-৬৫৭৯