বাংলাদেশ পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রতিবেদন

Posted on Posted in 4

<৪,১৩৯,২৫৫>

অনুবাদকঃ ওমর বিন কিবরিয়া

শিরোনামসূত্রতারিখ
১৩৯। বাংলাদেশ পরিস্থিতি সম্পর্কে প্রতিবেদনবাংলাদেশ লীগ অব আমেরিকার দলিলপত্রমে, ১৯৭১

 

                                                    বাংলাদেশের ৭ কোটি ৫০ লক্ষ জনগণের যুক্তি

সামরিক একনায়কইয়াহিয়া খান পরিচালিত পশ্চিম পাকিস্তানি সেনাবাহিনী দ্বারা বাংলাদেশে (ভূতপূর্ব পূর্ব পাকিস্তান) সংঘটিতবৃহত্তম মানব সৃষ্ট বিপর্যয়ের ব্যাপারে আপনারা নিশ্চয় শুনেছেন।পশ্চিম পাকিস্তানী সৈন্যরা নির্বিচারে হাজার হাজার নিরস্ত্র নিষ্পাপ জনগণকে হত্যা করেছে এবং বড় পরিসরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, বিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র, চিকিৎসক, প্রকৌশলী এবং রাজনৈতিক নেতাদের হত্যার পরিকল্পনা সম্পন্ন করেছে।

পাকিস্তানের ইতিহাসের প্রথম নির্বাচনের ফলাফলের এমন সাড়াই এই গণহত্যার কারণ;  বাংলাদেশের জনগণের অধিকার রক্ষা করতে অঙ্গীকারবদ্ধ হওয়াঅভিভূতভাবে জনপ্রিয় বিজয়ী প্রতিনিধিদের প্রতি পশ্চিম পাকিস্তানি সামরিক সরকারের প্রত্যুত্তর এটি।

এমনকি পাকিস্তান গঠনের সময়, যুক্তরাষ্ট্র সম্পূর্ণ পাকিস্তানের উন্নয়নের জন্য অর্থনৈতিক সাহায্য এবং বামপন্থী আগ্রাসন থেকে দেশকে রক্ষার্থে সামরিক সাহায্য সরবরাহ করেছে। যখন বাংলাদেশের জনগণঅর্থনৈতিক সাহায্য বণ্টনের স্বাধীনতা চেয়েছিলো, যা বহুবছর যাবত পশ্চিম পাকিস্তানের অধীনস্থ কেন্দ্রীয় সরকার দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলো, তাঁদের একত্রে নির্মূল করতে প্রতিষ্ঠিত সামরিক বাহিনীকে ব্যবহার করা হয়েছিলো।

বাংলাদেশে আতঙ্কের শাসনামল অটল আছে। হাজার হাজার জনগণ তাঁদের জীবন বাঁচাতে প্রতিবেশীদেশ ভারতে পালিয়ে গিয়েছে। আর যারা সৈন্যদের গুলি থেকে বেঁচে গিয়েছে তারা খাদ্যের অভাবে মৃত্যুর মতবিপদের সম্মুখীন হচ্ছে। বিস্তৃতভাবেগুটিবসন্ত এবং কলেরার ব্যাপারও লক্ষ করা গিয়েছে।

বাংলাদেশের জনগণ বেঁচে থাকার জন্য মরিয়া হয়ে যুদ্ধ করছে। এসব কারণে নাগরিক সমাজের প্রত্যেকটি শান্তিপ্রিয়সদস্যদের থেকে তাঁদের সাহায্য ও সহযোগিতা প্রয়োজন। আমরা আপনাদের কাছে আরও আহ্বান করি বাংলাদেশের জনগণের দুর্ভোগ নিরসনে উদার সাহায্যের জন্য।

 

 

বাংলাদেশকে সাহায্য করতে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী বাঙালিরা তাঁদের নিজেদেরকেসংঘবদ্ধ করেছে।আমরা, পিটসবার্গ এর ইস্ট বেঙ্গলিকমিউনিটির পক্ষে, আপনাদেরনিকট আবেদন করি যে যতক্ষণ পর্যন্ত না সামরিক শাসকরা তাঁদের নিষ্ঠুর শাসন বন্ধ করে এবং একটি গণতান্ত্রিক শাসন প্রতিষ্ঠিত না হয়; ততক্ষন পর্যন্ত অর্থনৈতিক এবং সামরিক সহায়তা উভয়ই বন্ধ করতে আপনি আপনার সিনেটর, ষ্টেট ডিপার্টমেন্ট এবং বিশ্ব ব্যাংককে  চিঠি এবং টেলিগ্রামের মাধ্যমে আপনার মত জানান।

ডঃ আয়ুব ইকবাল, ৫২১৭ ফিফথ এভিনিউ, পিটসবার্ঘ, পেনসিলভানিয়া ১৫২৩২ এই ঠিকানায়মেইলের মাধ্যমে চেক পাঠিয়ে বাংলাদেশ লীগ অব আমেরিকায় দান করতে পারেন। আরো তথ্যেরজন্য কল করুন ৩৬৩-২২২৩ অথবা ৬৮৩-৩১৪৬।