ব্রিটেনের এনফিল্ড এ্যাকশন কমিটির পক্ষে চাঁদা আদায়ের রশিদ বই সংক্রান্ত অভিযোগসহ বাংলাদেশ ফান্ডের ট্রাস্টি জন স্টোনহাউস এমপি-কে লিখিত চিঠি

Posted on Posted in 4

<৪,২৮০,৬৩৬-৬৩৭>

অনুবাদকঃ নিগার সুলতানা

শিরোনামসূত্রতারিখ
২৮০। ব্রিটেনের এনফিল্ড এ্যাকশন কমিটির পক্ষে চাঁদা আদায়ের রশিদ বই সংক্রান্ত অভিযোগসহ বাংলাদেশ ফান্ডের ট্রাস্টি জন স্টোনহাউস এমপি-কে লিখিত চিঠিএ্যাকশন কমিটির দলিলপত্র।

 

২৭ সেপ্টেম্বর, ১৯৭১

 

 

                                                     বাংলাদেশ এ্যাকশন কমিটি

                                                      ২৩৯, নাগস হেড রোড

                                                      পনডারস এন্ড. এনফিল্ড

                                                               ৭. ৯. ৭১       

 

জনাব জন স্টোনহাউস, এম. পি.

হাউস অব কমন্স,

ওয়েস্টমিনস্টার, লন্ডন, এস. ডাব্লিউ. আই.

 

জনাব,

আমরা নিম্ন স্বাক্ষরিত ব্যক্তিরা আপনার সহৃদয় পর্যবেক্ষণের জন্য, নিম্নোক্ত বিষয়গুলো আপনার নজরে আনতে ইচ্ছুক।

 

৮ ই আগস্ট, ১৯৭১ রবিবার আমাদের ১৯৫, নাগস রোড, এনফিল্ড, মিডলসেক্সে দেখা হয়েছিল এবং সর্বসম্মতিক্রমে এই সমস্যাগুলো সমাধানকল্পে “বাংলাদেশ এ্যাকশন কমিটি -এনফিল্ড” নামে একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয় একটি সুসংগঠিত ও সুশৃঙ্খল পদ্ধতিতে আমাদের কার্যক্রম পরিচালনার প্রত্যয়ে। এটি স্থির প্রতিজ্ঞ হয়েছিল যে জনাব আব্দুল করিম (২৩৯,  নাগস হেড রোড, এনফিল্ড) এর আহ্বায়ককে জনগণ ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের সাথে যোগাযোগ রক্ষার সকল দায়িত্ব দেয়া হবে।

 

তদানুসারে, আহ্বায়ক যুক্ত থাকে ব্রিটেনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের জনগণের জন্য কার্যকমিটির স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যদের সাথে বাংলাদেশ ফান্ডের সংগ্রহের রশিদ বইয়ের জন্য যেখানে তুমি একজন ট্রাস্টি। রশিদ বই নং ৯৯০১৯৯১ এবং ৯৯২ হতে ক্রমিক নং ২৪৭২৬-২৪৭৬৫২২৪৭৭৬-২৪৮০০ ইস্যুকৃত হয়েছিল ১৬.৮.৭১ তারিখে। সংগ্রহ সহজভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিল। ২৩ শে আগস্ট ৩০৮ ডলারের একটি সংগ্রহ স্টিয়ারিং কমিটিতে জমা হয়েছিল যা স্টিয়ারিং কমিটির পক্ষ থেকে জনাব এম. এম. হকের দ্বারা স্বীকৃত হয়েছিল।

 

আমরা অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছিলাম রশিদ বই সংক্রান্ত পরবর্তী ইস্যু নিয়ে, কিন্তু সব ভেস্তে এখন আমরা বলছি যে রশিদ বই আর ইস্যু হবে না। আমরা জোর করেছিলাম যে স্টিয়ারিং কমিটির সিদ্ধান্ত লিখিত ভাবে নিশ্চিত হবে, কিন্তু কোন সাফল্য ছাড়া।

 

আমরা সংযুক্ত থাকতে চেয়েছিলাম আবু সাইদ চৌধুরীর ন্যায়পরায়ণতার সাথে কিন্তু স্টিয়ারিং কমিটি একটি প্রতিবন্ধকতা যা ছাপিয়ে উঠা কঠিন।

 

আমরা আপনাকে প্ররোচনা দিতে চাই একজন ট্রাস্টি হিসেবে প্রয়োজনীয় কাজ করার জন্য যাতে আমরা রশিদ বই সহ প্রেরিত হই যাতে আমরা বাংলাদেশ ফান্ডের জন্য সংগ্রহ চালিয়ে যেতে পারি। অধীনে উল্লেখিত সদস্যরা

 বাংলাদেশ ফান্ডে অবদান রাখতে আগ্রহী হয়েছেন এবং যেকোন কৃত্রিম প্রতিবন্ধকতার ইতি টানা উচিৎ, বাংলাদেশ ফান্ডে অর্থ প্রবাহ রোধে দায়ী যেকোন নকশা পরাভূত করার জন্য।

 

আমরা কৃতজ্ঞ হব যদি আপনি সকল যোগাযোগের জন্য আমাদের আহ্বায়ককে ডাকতে সদয় হন।

 

                                       আপনার বিশ্বস্ত

                                  লুৎফুর রহমান

 

                   ————

 

                                                       ২০ গিলিংহাম স্ট্রিট

                                                   লন্ডন এস. ডাব্লিউ.  আই

                                                       ৭ অক্টোবর ১৯৭১

আরটি. হন

জন স্টোনহাউস

B Sc ( B con) এম পি

ফোন :০১ ৮৩৪ ০৯২২

 

জনাব আজিজ,

আমি খুব খুশি হব যদি আপনি এনফিল্ডের বাংলাদেশ কমিটি থেকে আগত চিঠিতে উত্থাপিত সমস্যাতে নজর দেন। 

                                            বিনীত

                                                 sd/-

 

জনাব এম. এ. এইচ. ভূঁইয়া

বাংলাদেশ স্টিয়ারিং কমিটি

১১ গোরিং স্ট্রীট

লন্ডন ই. সি. ৩

Enc1