লন্ডনে গঠিত বাংলাদেশ গণ-সংস্কৃতি সংসদের উদ্দেশ্য ও কার্যাবলী সম্পর্কে প্রতিবেদন

Posted on Posted in 4

<৪,২৬১,৬০৬>

অনুবাদকঃ নাবিলা ইলিয়াস তারিন

শিরোনামসূত্রতারিখ
২৬১। লন্ডনে গঠিত  বাংলাদেশ গণ-সংস্কৃতি সংসদের উদ্দেশ্য ও কার্যাবলী সম্পর্কে প্রতিবেদন

 

লন্ডনস্থ বাংলাদেশ গণ-সংস্কৃতি সংসদের দলিলপত্রজুন, ১৯৭১

 

বাংলাদেশের গণ-সাংস্কৃতিক সংগঠন

৫৯,সিমরহাউজ

টাভিস্টক প্লেইস

লন্ডনডব্লিউসিআই

ফোন: ৮৩৭-৪৫৪২

                            ভুমিকা

ইউ কে তে অবস্থিত বাংলাদেশ গণ-সাংস্কৃতিক সংগঠন এমন একটি প্রতিষ্ঠান যা লেখক,গায়ক,কবি,বাদক,পেইন্টার,গায়ক,ছাত্র,শিক্ষক,সাংবাদিক সহ আরও অনেক পেশার লোকজনের সমন্বয়ে গঠিত যারা বিবিধ কারনে বাইরের দেশে বসবাসরত এবং দেশের সংস্কৃতির সাথে যুক্ত।

এই সংঠনের উদ্দেশ্য হচ্ছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে সহায়তা করা,বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের অপরিহার্যতা বুঝাতে দেশের জাতীয়তাবাদের সংস্কৃতির মাধ্যমে বিশ্বে প্রভাব বিস্তার করা,এবং বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা প্রগতিশীল ও স্বাধীনতাকামী বুদ্ধিজীবীদের সাথে যোগাযোগ স্থাপন ও বাংলাদেশের একনায়কতান্ত্রিক এবং উপনিবেশবাদী সংগ্রামের বিরুদ্ধে সমর্থন সংগ্রহ করা।

সমাজের সকল কার্যক্রমে অংশগ্রহনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সকল দেশপ্রেমিক নাগরিককে আহব্বান কর যাচ্ছে।উপরোক্ত উদ্দেশ্যসমূহ অর্জনের জন্য সংগঠনের কাজ হবে বক্তৃতা,সেমিনার,সম্মেলন,বিতর্ক,বাদ্যযন্ত্র,সান্ধ্যভোজ,দেশাত্ববোধক নাটক,চিত্রকলা,আলোকচিত্র,ছায়াছবির আয়োজন করা,পত্রিকা প্রকাশ করা এবং বাংলাদেশের জাতীয় সংস্কৃতি প্রচারের লক্ষ্যে পৃষ্ঠোপোষকতার মাধ্যমে দেশের সাংস্কৃতিক প্রতিনিধি দল প্রেরণ করা।গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের নাগরিকদের উপরোক্ত ঠিকানায় যোগাযোগ করতে বলা হল।
                                গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ দীর্ঘজীবী হোক

মুন্নি রহমান                                                                                                         এনামুল হক

সাধারণ সম্পাদক                                                                                                   রাষ্ট্রপতি

                                                           জুন,১৯৭১