স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অনুষ্ঠান প্রচার সম্পর্কিত একটি সভার কার্যবিবরণী

Posted on Posted in 5
                শিরোনা্ম      সূত্র      তারিখ
২৬। স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অনুষ্ঠান প্রচার সম্পর্কিত একটি সভার কার্যবিবরনী‘বেতার বাংলা’

ডিসেম্বর,১৯৭৮

১০ অক্টবর, ১৯৭১

যুদ্ধের কার্যকলাপের সপক্ষে প্রচারনা এবং প্রজ্ঞাপনের সমন্বয়ের ওপর সভার কার্যবিবরনীর সারাংশ।

১০-১০-১৯৭১ তারিখে অনুষ্ঠিত

উপস্থিত সদস্যগণঃ

১. এ. সামাদ, সেক্রেটারী, প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়

২. ড. বি. হোসেন

৩. জনাব আলমগীর কবির

৪. জনাব শামসুল হুদা চৌধুরী

৫. জনাব কামাল লোহানী

৬. জনাব এ. রাহমান

৭. জনাব বি. মাহমুদ

গত সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তের কার্য অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা করা হয়। বাংলাদেশ রেডিওর সদস্যগণ নিশ্চিত করেছেন যে, তারা ইতোমধ্যে আলোচিত ধারা অনুযায়ী কাজ করছেন এবং ১৫-১০-৭১ তারিখের মধ্যে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি লক্ষ্য করা যাবে।

সেখানে রেডিও প্রোগ্রামের উন্নতিতে অবদান রাখবে এমন বিষয় নিয়েও আলোচনা করা হয়।

সিদ্ধান্ত সমুহঃ

১. অবিলম্বে রেডিও বিল্ডিংয়ে একটি অফিস স্থাপন করা হবে এবং সকল প্রাতিষ্ঠানিক কার্যাবলি সেখানে হবে।

২. সংবাদের গঠন পদ্ধতি পরিবর্তন করা হবে এবং ইংরেজি, বাংলা ও উর্দু বুলেটিনের পাঠ্যাংশও একই থাকবে।কাজের চাপ বিবেচনায় জনাব এ. কাবু রাতের বুলেটিন তৈরী করবেন এবং জনাব ক. লোহানী সকাল ও বিকালের বুলেটিন তৈরী করবেন।

৩.রেডিওতে অবিলম্বে একটি টাইপ রাইটিং মেশিন, দুইটি বহনযোগ্য টেপ রেকর্ডার এবং একটি ক্যাসেট টেপ রেকর্ডার সরবরাহ করা হবে।

৪. যেহেতু বর্তমানে কোন যাতায়াতের ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না, বহির সম্প্রচার বিভাগের কর্মচারীরা প্রায়শই নিজ খরচে প্রদত্ত কর্মক্ষেত্রে যাবেন।

৫। দেশাত্ববোধক  গানের উপর নির্ভরতা কমিয়ে আনা উচিত এবং এর জায়গায় সমর সঙ্গীত ও বাদ্যের প্রবর্তন করতে হবে।

৬। অবিলম্বে আগরতলা থেকে মাইক্রোফোন আনার ব্যাবস্থা করা উচিত

৭। ১৫.১০.১৯৭১ থেকে নিরপত্তা ব্যাবস্থা আরো জোরদার করা হবে, এর মধ্যে যেখানে প্রয়োজন সেসব জায়গায় আইডি কার্ড ইস্যু করতে হবে।

৮। চিত্রনাট্য রচয়িতা এবং বক্তাদের পারিশ্রমিক অবশ্যই নিয়মিত ভাবে প্রদান করতে হবে।

৯। এম এন এ- এর ইনচার্জ এম এ মান্নানের সাথে আলোচনা করে অবিলম্বে ট্যালেন্ট নিয়ে একটি প্যানেল চূড়ান্ত করতে হবে।

১০। পর্যাপ্ত অগ্রীম সময় ( কমপক্ষে ৪দিন)  নিয়ে ৭ দিনের জন্য অনুষ্ঠানমালা একবারে করতে হবে, অনুষ্ঠান সাজানোর দায়িত্ব নিজ নিজ অনুষ্ঠান সংগঠক/ বিভাগীয় প্রধানের উপর থাকবে।

১১। পাকি-পত্রিকা থেকে তথ্য নিয়ে পালটা প্রচারণা বিভাগের ব্যাবস্থাপনায় থাকবেন সচিব মহোদয়।

এসডি /এ সামাদ

সেক্রেটারী

প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়

মেমো নং D-003/76(8)

১। এম এন এ ইনচার্জ, অথ্য ও তথ্য সম্প্রচারক এম এম মান্নান কে প্রতিলিপি পাঠানো

২। জনাব সামসুল হুদা চৌধুরী, স্বাধীন বাংলার বেতার তথ্য সচিব ।

.

—০—

৫ম খণ্ডের দলিলপত্র এখানেই সমাপ্ত। নিম্নে ‘শেষ কথা’ শিরোনামে আমাদের কিছু কথা লেখা হল।

.

শেষ কথা
  • আমরা চাইলে প্রোফেশনাল কাউকে দিয়ে এই দলিলপত্র কম্পাইল/অনুবাদ করাতে পারতাম। কিংবা স্ক্যান করে ওসিআর-এর সাহায্যে দলিলপত্রকে ইউনিকোডে কনভার্ট পারতাম। কিন্তু আমরা সেই কাজ করবো না। আমরা চাই যে এই প্রজন্ম নিজে কম্পাইল করে/অনুবাদ করে ধীরে ধীরে শিখতে শিখতে নিজেদের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা জাগিয়ে তুলুক। কাজ থেকেই চেতনার জন্ম, কথা থেকে নয়।
  • পাঠকালে বানান কিংবা অন্য যে কোন ইস্যুতে যে কোন ভুল-ভ্রান্তি চোখে পড়লে সাথে সাথে আমাদের ফেসবুক পেইজে একটি মেসেজ দিয়ে জানাবেন। ভালো/মন্দ যে কোন ধরণের পরামর্শ অত্যন্ত আনন্দের সাথে গৃহীত হবে এবং আপনাকে অত্যন্ত দ্রুত আমাদের ফেসবুক পেজ থেকে লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে রিপ্লাই দেয়া হবে। কারণ আমাদের ফেসবুক পেজটি একই সাথে দেশ এবং বিদেশ থেকে পরিচালিত হচ্ছে। ফলে এডমিন প্যানেলের কেউ না কেউ সারাক্ষণই অনলাইনে আপনার ফিডব্যাকের অপেক্ষায় আছেন। আমাদের ফেসবুক পেজের লিংকঃ

https://www.facebook.com/muktizuddho1971

  • প্রকল্পটি নতুনদের জন্য সদা উন্মুক্ত। অর্থাৎ আপনি যদি আমাদের সাথে মুক্তিযুদ্ধের দলিলপত্র নিয়ে কাজ করতে চান, তবে আমাদের ফেসবুক পেজে একটা মেসেজ পাঠিয়ে আপনার আগ্রহের কথা জানালেই হবে। আমরা কিছুদিন পর আপনাকে আমাদের কর্মযজ্ঞের অংশ করে নিবো। কাজ বুঝিয়ে দেবো। দল-মত-ধর্ম-বর্ণ-পরিচয় নির্বিশেষে আমাদের এই উদ্যোগ। তাই সকলের শুভকামনা আমাদের কাম্য।
  • এটি কোন একক ব্যক্তি কিংবা একক গ্রুপের উপর নির্ভরশীল প্রোজেক্ট নয়। তাই স্পেসিফিক কেউ একজন থাকলে বা না থাকলে এই প্রোজেক্টের কিছুই যাবে-আসবে না। আগামীকাল আমিনুল হক পলাশ নামক আইডিটি না থাকলে কিছুই আসে-যায় না। তাঁর জায়গায় অন্য কেউ কাজ করতে থাকবেন। আমাদের ফেসবুক পেজ থেকে কাজ চলতে থাকবে। ফেসবুক পেজ কোন কারণে বন্ধ হয়ে গেলে তা আবার নতুন করে খোলা হবে। কারণ আমাদের হাতে দলিলপত্র আছে। ডেডিকেটেড লেখকেরা আছেন। তাই এই প্রোজেক্টটা থেমে যাওয়ার কোন সম্ভবনা নেই। এভাবেই প্রোজেক্টটাকে ডিজাইন করা হয়েছে। প্রকৃতি শূণ্য স্থান পছন্দ করে না। আমরাও না। আমরা প্রকৃতির অংশ। আপনিও, তাই না?