১০ অক্টোবর বিশ্বের মুক্তিকামী সরকার বাংলার মুক্তিবাহিনীকে অস্ত্র দিন

Posted on Posted in 6

মোঃ আহসান উল্লাহ

<৬,১২৬,২০৯>

সংবাদপত্রঃ বিপ্লবী বাংলাদেশ ১ম বর্ষঃ ৮ম সংখ্যা

তারিখঃ ১০ অক্টোবর,১৯৭১।

বিশ্বের মুক্তিকামী সরকার বাংলার মুক্তিবাহিনীকে অস্ত্র দিন। (রাজনৈতিক ভাষ্যকার)

বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধারা আজ দুর্বার দুর্জয়। প্রতিটি মুক্তিযোদ্ধা আজ একটি অগ্নিস্ফুলিঙ্গ। পাক জঙ্গিশাহীর লেলিয়ে দেওয়া হানাদার বর্বর নরপশুগুলোকে তাড়িয়ে দেওয়ার প্রতিজ্ঞায় দৃঢ় প্রতিজ্ঞ বাংলার অসম সাহসী মুক্তিযোদ্ধারা। তাঁদের জীবনের একমাত্র পণ হয় মুক্তি নয় মৃত্যু। মৃত্যুকে আজ আর ভয় পায় না বাংলার তরুণ শক্তি। মৃত্যুকে জয় করেছে বাংলার মানুষ এক করুণ বাস্তবতার মধ্য দিয়ে। বাংলার মানুষ আজ মুক্তিপাগল। বাংলার মানুষ দেখেছে ইয়াহিয়ার নাৎসিবাহিনীর পৈশাচিক উল্লাস। তাইতো বাংলাদেশ আজ নাপাম বোমার মত জ্বলছে। জ্বলছে তাদের পুড়িয়ে মারবার জন্য যারা সোনার বাংলাকে শ্মশান করেছে, যারা বাংলার ছায়াসুনিবিড় নীড় ভেঙ্গেছে, যারা বাংলার বুকে হিংস্র হায়েনার মত থাবা বিস্তার করেছে। বাংলাদেশের প্রতিটি ঘর এক একটি দুর্জয় ঘাটি। প্রতিটি ঘাটিতে আজ এক দারুন উৎকণ্ঠা। প্রতিটি ঘাঁটির প্রতিটি মানুষ প্রতীক্ষায় উন্মুখ। বিশ্ব এগিয়ে আসবে তাদের পাশে, তাদের হাতে তুলে দেবে মারণাস্ত্র। আর তা নিয়ে ঝাপিয়ে পরবে অসুর শক্তির করবে বাংলার শক্তি। বাংলার মানুষ অন্ন চায় না, বস্ত্র চায় না, চায় শুধু অস্ত্র। অস্ত্র পেলে বাংলার মানুষ দেখিয়ে দেবে কেমন করে স্বীকৃতি পাওয়া যায়। তাই বাংলার প্রতিটি মানুষের একমাত্র আবেদন বিশ্বের মুক্তিকামী জনতা ও সরকারের কাছে, যেন সর্বরকমের অস্ত্র দিয়ে সাহায্য করে বাংলার মুক্তিকামী মানুষকে।