২৩০. ৩ ডিসেম্বর ঐক্যবদ্ধভাবে শত্রুর বিরুদ্ধে আঘাত হানার দৃঢ় সংকল্প

Posted on Posted in 6

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

<৬,২৩০,৩৮৫>

শিরোনামসংবাদ পত্রতারিখ
ঐক্যবদ্ধভাবে শত্রুর বিরূদ্ধে আঘাত হানার দৃড় সংকণ্পবাংলাদেশ

১ম বর্ষ ঃ ৬ষ্ঠ সংখ্যা

০৩ ডিসেম্বর ১৯৭১

 

ঐক্যবদ্ধভাবে শত্রুর বিরূদ্ধে আঘাত হানার দৃড় সংকণ্প

 

মুজিবনগর, গত ৬ই এবং ৭ই নভেম্বর বাংলাদেশের প্রধানমন্তী তাজউদ্দীনের সভপতিত্বে বাংলাদেশ সরকারের উপদেষ্টা পরিষদের এক সভা অনুষ্ঠিত হয় এবং এই সভায় উপরোক্ত সংকল্পের কথা পুনরায় ঘোষনা করা হয়। বৈঠক জাতীয় মুক্তিসংগ্রামের বর্তমান পরিস্থিতি পর্যালোচনা করিয়া সর্বসম্মতিক্রমে নিম্নলিখিত প্রস্তাব গ্রহন করা হয়।

 

কমিটি মনে করে যে, ইহাহিয়ার যুদ্ধবৎ প্রস্তুতি ও ভারত পাকিস্তান যুদ্ধ বাধানোর প্রকাশ্য পাঁয়তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতার প্রশ্ন ও দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধের ক্রমবর্ধমান সাফল্য হইতে বিশ্বের দৃষ্টি অন্যত্র সরানোরই একটি কুমতলব। কমিটি শত্রুর স্পষ্টতঃ দৃশ্যমান দুর্বলতাসমূহের পূর্ণ সুযোগ গ্রহণ এবং শত্রুর পতন দৃততর করার উদ্দেশ্যে তাহার উপর ঐক্যবদ্ধ ও চরম আঘাত হানার জন্য সকল শ্রেনীর ও সম্প্রদায়ের মানুষ এবং সকল স্তরের মুক্তিসেনানীদের প্রতি আহবান জানাইতেছে।

 

কমিটি পূর্ণ স্বাধীনতার লক্ষ্যকে দ্রুতবাস্তবায়িত করার সংকল্প পুনরায় ব্যক্ত করিতেছে এবং স্বাধীনতার কমে সমাধানের নিমিত্ত সকল বক্তব্য ও ফর্মুলা প্রত্যাখ্যান করিতেছি।

 

স্বাধীনতার জন্য যাহারা জীবন জীবন দিয়াছেন, তাহাদের ত্যাগ স্মরন করার সঙ্গে সঙ্গে কমিটি ঐসব নিহত বীরদের সহিত সংহতি ঘোষনা করিতেছে এবং সপথ গ্রহণ করিতেছে যে, যে কারনে তাঁহারা সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করিয়াছেন, উহার সঙ্গে কখনো বিশ্বাস ভঙ্গ করা হইবে না।