৪১. ১ জুলাই বাংলাদেশ আন্দোলনের খবর

Posted on Posted in 6

অনুবাদঃ তাসমিয়াহ তাহসিন

<৬, ৪১, ৬৪২-৬৪৩>

শিরোনামঃ বাংলাদেশ আন্দোলনের খবর

সংবাদপত্রঃ বাংলাদেশ নিউজ লেটার শিকাগোঃ নং ৪

তারিখঃ ২১ জুলাই, ১৯৭১

.

 

পশ্চিম উপকূলে

বাংলাদেশ গোষ্ঠী সমন্বয়ক পর্ষদ 

 

বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের শুরুর সঙ্গে সঙ্গে সব বাঙালিদের সহজাত দেশাত্মবোধক প্রতিক্রিয়া সমন্বয়ের ও সঞ্চালনের জন্য উপায় খোঁজা প্রয়োজনীয় হয়ে ওঠে । কার্যকরী সমন্বয় ও যোগাযোগের জন্য কিছু নির্দিষ্ট সীমা অতিক্রম করতে একটি সভা সান ফ্রান্সিসকোতে ২২ মে,১৯৭১ তারিখে অনুষ্ঠিত হয়, যেটিতে লস এঞ্জেলস, বার্কলে, স্টেনফোর্ড এবং সান ফ্রান্সিঙ্কো থেকে বাঙ্গালিরা অংশগ্রহণ করেন। এই সভায় নিম্নোক্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়ঃ 

 

১.প্রধান সমন্বয়ক  অংশ নিউ ইয়র্কে সংস্থিত হবে এবং বার্কলে, সান ফ্রান্সিস্কো, স্টেনফোর্ড, সান ডিয়াগো, সান্টা বারবারা, ডেনভার (কলরাডো)এবং টাস্কন (আরিজোয়ানা)ইত্যাদি  অন্যান্য পশ্চিম উপকূলের ইউনিট গুলোর সাথে যোগাযোগ রক্ষা করবে। এটি হাওয়াই, ডালাস ও পিটসবার্গে (কানাস) আরো কিছু ইউনিটের সাথে সমন্বয় স্থাপনে উন্মুখ হয়ে আছে।

 

২. প্রধান সমন্বয়ক অংশ দ্বারা নিউ ইয়র্ক, ওয়াশিংটন, শিকাগো ও মিশিগানের সাথে সক্রিয় যোগাযোগ রক্ষা করা হবে, এবং এটি বাংলাদেশ সরকার থেকে প্রাপ্ত নির্দেশাবলী পশ্চিম উপকূলীয় অন্য সকল ইউনিট গুলোতে বহনও করবে।

 

৩. সবগুলো ইউনিট নিজেদের মধ্যে আগ্রহের বিষয়ে তথ্য বিনিময় করবে এবং স্থানীয় সদস্যদের কাছে সেগুলোর খবর স্থানীয়দের কাছে সরবরাহ করবে। 

 

৪. প্রচারকার্যের উপরি খরচ ও অন্যান্য সমন্বয়ের খরচ বহনের জন্য সকল পশ্চিম উপকূলীয় ইউনিট দ্বারা মোট সংগ্রহের উপর ৫% রেমিটেন্স  লস এঞ্জেলস পর্ষদকে দেওয়া হবে।

 

৫. সাধারনভাবে আমেরিকার জনগণের কাছে, বিষেশত আমেরিকান প্রতিনিধিদের কাছে আমাদের দেশে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর নৃসংশতা ও বর্বরতা প্রকাশ করতে, এবং স্বাধীনতা সম্পন্ন করতে বাংলাদেশের বৈধ দাবী প্রচারে সাধারণত প্রতিটি ইউনিট প্রচার প্রচারনা চালু রাখবে।  

 

৬. তহবিলের সকল সংগ্রহের বিবরণী লস এঞ্জেলস কে জমা দেওয়া হবে।

 

৭. সকল নাগরিক ও সমব্যথীদের একটি সার্বিক লিষ্ট বানানো হবে এবং প্রতিটি ইউনিটের সমন্বয়কেরা সেসব নাম ও ঠিকানা লস এঞ্জেলসের সমন্বয়ককে পাঠাবে। 

 

গনসভা

ফোর্থ এন্ড আর্চ স্ট্রীট, ফিলাদেলফিয়াতে অবস্থিত ফ্রেন্ডস মিটিং হাউজে ২৪ ই জুন  , বৃহস্পতিবার, ৮ ঘটিকায় এক গনসভা অনুষ্ঠিত হবে। এই বৈঠকের প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে “ফ্রেন্ডস অব ইস্ট বেঙ্গল” নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করা যেটি ১)আমেরিকান নাগরিকদের পূর্ব বাংলার কার্যক্রম সম্বন্ধে অবগত করবে, ২) ত্রাণকার্যে সহায়তা করবে এবং ৩) পূর্ববাংলায় তাদের ত্রাসের রাজত্ব বন্ধ করার আগ পর্যন্ত পশ্চিম বাংলার সকল সহায়তার উপর সরকারী নিষেধাজ্ঞা আরোপের আবেদন করবে। বৈঠকটি অধ্যাপক চার্লস কান (পেন বিশ্ববিদ্যালয়), রেভ. রিচার্ড এল. কিয়াচ (সেন্ট্রাল ব্যাপিস্ট চার্চ , ওয়েন) এবং অন্যান্যদের দ্বারা সংগঠিত হবে। সবাইকে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে।

 

সংবাদ সংক্ষেপ

উইন্ডসর বিশ্ববিদ্যালয়, কানাডায় ৭ই জুলাই,১৯৭১, ৭ ঘটিকায় বাংলাদেশের একটি সভা অনুষ্ঠিত হবে। এই সভার বিষয় হচ্ছে “দি কেস ফর বাংলাদেশ”। বক্তা হিসেবে থাকবেন অধ্যাপক রন ইন্ডেন, ইতিহাস বিভাগ, শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়, অধ্যাপক রালফ নিকোলাস, নৃবিজ্ঞান বিভাগ, মিশিগান স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়, অধ্যাপক পিটার বারতোক্কি, সমাজবিজ্ঞান ও নৃবিজ্ঞান বিভাগ, অকল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়, মিশিগান, আজিজুল হক খন্দকার, বিডিএল পরিচালক, ডেট্রয়েট। সভার স্থান হল ‘দি রুম’, এসাম্পটন কলেজ, ৪০০ হারন লাইন, উইন্ডসর, কানাডা। সবাইকে অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য আন্তরিকভাবে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে।

 

বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা পরিষদের পরবর্তী সভা মেডিসন, উইস্কন্সিনে ৩রা জুলাই, ১৯৭১ (শনিবার, ১.৩০ ঘটিকায়) অনুষ্ঠিত হবে।বিডিএল এর সকল সদস্য এবং সমব্যথীরা এই সভায় যীগদানের জন্য স্বাগত। যদি আপনি যোগদানে ইচ্ছুক হন, তবে দয়া করে এই ঠিকানায় যোগাযোগ করুন- বিডিএল, ৪০৮ ভার্জিনিয়া টেরেস, মেডিসন, উইস্কন্সিন (ফোন-৬০৮-২৩৩-০২৫৩)

 

ওয়াশিংটনে জনাব আব্দুর রাজ্জাক দ্বারা বাংলাদেশের তথ্য কেন্দ্র স্থাপিত হয়েছে। এই দপ্তরে ওয়াশিংটন ডিসি এর সকল তদবির কার্যক্রম সমন্বিত হবে। তদবিরের জন্য যে কোন নির্দেশনার প্রয়োজনে জনাব খানের সাথে ৭০৩-৯৩১-২৯ এ  

( অফিস ৯৭ হবে) যোগাযোগ করুন।