11

যুদ্ধ পরিস্থিতি রিপোর্টঃ বানপুর সাব সেক্টর

Posted
শিরনাম উৎস তারিখ
৩৪। যুদ্ধ পরিস্থিতি রিপোর্ট  বানপুর সাব সেক্টর ৮ নং সেক্টরের দলিলপত্র ১৯৭১

 

ট্রান্সলেটেড বাই: Razibul Bari Palash

<১১, ৩৪ , ৪৬১- ৪৬৫>

 

ক্রমিক নং

 

সূত্র নম্বর   তারিখ

 

তথ্য অন্তর্ভুক্তির তারিখ ঘটনা

 

জি ৩০২৭

৩১-১০-৭১

২-১১-৭১ নিয়মিত বাহিনী সুন্দরপুরে এস কিউ  ০২২৫ এম/এস ৭৮/ডি/২১ ২৮/২৯ অক্টোবর রাতে শত্রুদের উপর আক্রমণ করে। ১ জন রাজাকার নিহত। ৩০ অক্টোবর ০৭৩০ টায় জামাত ই ইসলাম মুক্ত গ্রাম চর বাগডাঙ্গা আক্রমণ করে এস কিউ ০৩২৪ এম/এস ৭৮/ডি/২ । ২ জন জামাতি নিহত ও ১ জন আহত হয়।

 

 

জি ৩০৩৫

৫-১১-৭১

৬-১১-৭১ ২৯/৩০ অক্টোবর রাতে নিয়মিত ও গন বাহিনী শত্রুদের ২ টি যান ধ্বংস করে। হতাহতের পরিমাণ জানা যায়নি। আমাদের কোন হতাহত নাই।
জি ৩০৩৭

৬-১১-৭১

৮-১১-৭১ আমাদের বাহিনী দেবিনগর এস কিউ ০৮২১ এম/এস ৭৮/ডি/৬  ৫/৬ নভেম্বর রাতে রাজাকার দের অবস্থানে আক্রমণ করে। ২ রাজাকার নিহত হয়। ৬ টি ৩০৩ রাইফেল আটক করা হয়। 

 

জি ৩০৩৯

৭-১১-৭১

৮-১১-৭১ ইসলামপুরে এস কিউ ০৮২৪  এম/এস ৭৮/ডি/১ ও জয়ন্দিপুরে এস কিউ ৯৮৩০  এম/এস ৭৮/ডি/২ আমাদের ২ টি বাহিনী আক্রমণ করে। ফলাফল যানা যায়নি। ৬/৭ নভেম্বর রাতে কসবায় অ্যামবুশ করে। একটি উইলি জীপ পুড়িয়ে দেয়া হয়। ৫ জন আলবদর নিহত। ২ টি ৩০৩ রাইফেল ও ৩০৩ এমন ৯৬ টি দখল। 

 

জি ৩০৪০

৮-১১-৭১

১৪-১১-৭১ ০৭ নভেম্বর ১৫ জন পশ্চিম পাকিস্তানী মিলিশিয়া জহুরপুর এস কিউ ৯৫২৪  এম/এস ৭৮/ডি/ ৩ গ্রামে লুট করার জন্য আসে। আমাদের বাহিনী তাদের অ্যামবুশ করে। ৫ জন নিহত হয় তাদের। ১ টি লাশ বেইজে এনে কবর দেয়া হয়। ১ টি ৩০৩ রাইফেল ও ৩০৩ বল এমও ৫০ টি উদ্ধার করা হয়। ইসলামপুরে এস কিউ  ০৮২৪ এম/এস ৭৮/ডি/১ ও জয়ন্দিপুরে এস কিউ ৯৮৩০  এম/এস ৭৮/ডি/২ রাজাকারদের অবস্থানে আক্রমণ করা হয়। সময়টা ছিল ৬/৭ নভেম্বর রাতে। পাকসেনা ও রাজাকার মিলে ৮ জন নিহত হয়।

 

 

 

জি ৩০৪৮

১০-১১-৭১

১৪-১১-৭১ কলিকাতা গ্রাম এস কিউ ০৮২৩ এম/এস ৭৮/ডি/২ শত্রুরা পুড়িয়ে দেয়। এটি ৯ নভেম্বরের ঘটনা। এর পরে তারা দেবিনগরের দিকে আগায়। আমাদের বাহিনি ৩ ইঞ্চি মর্টার দিয়ে আক্রমণ করে। শত্রুরা ইসলামপুর এস কিউ ০৮২৪ এম/এস ৭৮/ডি/২ ফিরে যায়।

 

 

জি ৩০৫২

১১-১১-৭১

১৪-১১-৭১ ৯/১০ নভেম্বর রাতে ৩ ইঞ্চি মর্টার দিয়ে আমাদের বাহিনী সারদা পি টি সি তে আক্রমণ করে। ৪ জন পাকসেনা নিহত হয়। দালান সামান্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ১০ নভেম্বর সারদা আইয়ুব ক্যাডেট কলেজ আক্রমণ করা হয়। ১ পাকসেনা, ১ রাজাকার ও ১ এজেন্ট নিহত হয়। ১ টি ৩০৩ রাইফেল উদ্ধার করা হয়।
জি ৩০৫১

১১-১১-৭১

১৪-১১-৭১ নরেন্দ্রপুর এস কিউ ০২২০ এম/এস ৭৮/ডি/৩ অবস্থানে শত্রুরা ৩ ইঞ্চি মর্টার দিয়ে ১১ নভেম্বর আক্রমণ করে। হতাহত যানা যায়নি।

 

জি ৩০৫৪

১২-১১-৭১

১৪-১১-৭১ জয়ন্দিপুরে এস কিউ ৯৭২৭  এম/এস ৭৮/ডি/২ ১১ নভেম্বর নিয়মিত বাহিনী আক্রমণ করে। আমাদের ১ জন আহত। বারা রাশিনা এস কিউ ০৩২৪ এম/এস ৭৮/ডি/২ ১১ নভেম্বর আক্রমণ করা হয়। ৩ রাজাকার আটক ও  ২ রাজাকার নিহত হয়। ১ জন শান্তি কমটির চেয়ারম্যান ভীতি প্রদর্শন করে। ৫ টি ৩০৩ রাইফেল জব্দ করা হয়। ১০ নভেম্বর শত্রুদের ইসলামপুর অবস্থানে আক্রমণ করা হয়। হতাহত জানা যায়নি । আমাদের ২ জন আহত হয়েছে।

 

 

১০ জি ৩০৪৪

৯-১১-৭১

১৪-১১-৭১ ৬ অক্টোবর তাবুনিয়ায় একটি বিদ্যুৎ পাইলন উড়িয়ে দেয়া হয়। জি আর ১১৪৬৪১ এম/এস ৭৮ এইচ/৪ ১০ অক্টোবর। দুব্লিয়াতে জি আর ২৯০৫৫০  এম/এস ৭৯/ই/ এস রাজাকার অবস্থানে আক্রমণ করে ১৪ জনকে হত্যা করা হয়। ১৪ টি রাইফেল উদ্ধার। ১৪ অক্টোবর দুব্লিয়া থানা- সুজানগর আক্রমণ করে ৬ রাজাকার হত্যা করা হয়। ৬ টি ৩০৩ রাইফেল উদ্ধার হয়। কলদিতে জি আর ২৭১৫৫৬  এম/এস ৭৯ ই/৫  ১৭ অক্টোবর – ০৩ নভেম্বর ব্রিজ  উড়িয়ে দেয়া হয়। নন্দগাছিতে জি আর ৬৮১৯৬৩ ৭৮ ডি/১১ রেলওয়ে ব্রিজ উড়িয়ে দেয়া হয় । ৬/৭ নভেম্বর রাতে সাহাপুর জি আর ৫৫৪৯৯৬ এম/এস ৭৮ ডি/১১ আক্রমণ করা হয়। ৩ রাজাকার আটক। ৪ টি রাইফেল আটক করা হয়।

 

 

১১ জি ৩০৫৮

১৩-১১-৭১

১৪-১১-৭১ শেকারদারি থানা আটঘরিয়াতে ১৮ অক্টোবর ১ জন পাক আর্মি এজেন্ট কে হত্যা করা হয়। ২৯ অক্টোবর আটঘরিয়াতে এস কিউ ১৬০৭১৭  এম/এস ৭৮ এইচ/৪ শত্রুদের অবস্থান আক্রমণে ৯ রাজাকার নিহত হয়। ৪ টি ৩০৩ রাইফেল জব্দ করা হয়। ৩০ অক্টোবর মাজপুরে জি আর ১১৮৭৪৮ এম/এস ৭৯ এইচ/৪ আক্রমণ করা হয়। ৩ রাজাকার ও ২ জন শান্তি কমিটির সদস্য নিহত হয়। আমাদের হতাহত নাই। ০৩ নভেম্বর ফুলজান জি আর ২১৬৭১৫ এম/এস ৭৮ এইচ/৮ শত্রুদের অবস্থানে আক্রমণ করা হয়। ১ জন রাজাকার নিহত হয়। খিদারপুরে ১০৩৬১৯ এম/এস ৭৮ এইচ/৮ ৬ নভেম্বর আক্রমণ করে ১ জন ক্যাপ্টেন সহ ১৩ পাকসেনা আহত করা হয়। আমাদের গণবাহিনীর ৩ জন ও স্থানীয় ট্রেনিং প্রাপ্ত ৪ জন নিহত হয়। অস্ত্র ক্ষয়ক্ষতি নিম্নরূপ- এস এল আর – ৪ টি, ৩০৩ রাইফেল ৬ টি, এস এম জি ১ টি ৩০৩ বল এমও ১০০০। ৭-৬২ মি মি বল ৮০০। ৯ মি মি বল ২০০ টি।
১২

 

জি ৩০৫৭

13-11-7১

১৫-১১-৭১ বারা রাশিয়া গ্রামে  ১২১৪৩০ নভেম্বর এস কিউ ০৫২৪  এম/এস ৭৮/ডি/২  ও বাগডাঙ্গা এস কিউ ০৩২৪ এম/এস ৭৮/ডি /২ শত্রুরা আগুন দেয়। 
১৩ জি ৩০৬৩

১৫-১১-৭১

১৫-১১-৭১ রায়পারা এম বাগান ০১২২০০ নভেম্বর এস কিউ  ৪০১০৪৪ এম/এস ৭৮/ডি/১১ রাজাকার অবস্থানে আক্রমণ করে ৫ রাজাকার হত্যা করা হয়। আমাদের কোন হতাহত নাই। ৫ টি ৩০৩ রাইফেল উদ্ধার করা হয়। রাজাকাররা গুলি করার সময় একটি পাক আর্মি দল  সেখানে আসে। কিন্তু তারা রাজাকারদের মুক্তিফৌজ মনে করে গুলি করে। এতে ৪১ রাজাকার নিহত হয়। পাকসেনাদের হতাহতের পরিমাণ জানা যায়নি। ০৩২০৩০ নভেম্বর  গোদাগারীতে একটি বিবাহ অনুষ্ঠানে আক্রমণ করে ২ জন মিলিশিয়া, ১ বিহারি পুলিশ এ  এস আই , ১ জন কনস্টেবল হত্যা করা হয়। ১ টি ৩০৩ রাইফেল, ১ টি পিস্তল আটক করা হয়। ০৪১৯০০ নভেম্বর ললিতনগর ২৬২৮ এম/এস ৩ রাজাকার নিহত হয়। ৩ টি ৩০৩ রাইফেল আটক করা হয়। ০৬১৪০০ নভেম্বর ১২ বোর বন্দুক ২ টি বিলাসী গ্রামের শান্তি কমিটির সদস্যের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। ০৭১৩০০ নভেম্বর বাবুপুরে রাজাকার অবস্থানে আক্রমণে ৬ রাজাকার নিহত, ৬ টি ৩০৩ রাইফেল উদ্ধার হয়। ১০ নভেম্বর শাকনা ও মহানপুরে ৫০২৩ এম/এস ৭৮ ডি/১০ আক্রমণ করে রাজাকার ও অবাঙ্গালী সহ ৩০ জন হতাহত হয়। ২ টি ৩০৩ রাইফেল , ১২ বোর বন্দুক ২৮ টি ও এম এম জি ১ টি আটক করা হয়।
১৪ জি ৩০৬৭

১৭-১১-৭১

১৯-১১-৭১ ১৬/১৭ নভেম্বর রাতে আলাইপুরের এস কিউ  ৬৩৪৮৩২ এম/এস ৭৮/ডি/১৬ ৩ জন কুখ্যাত দালাল আটক করা হয় ও হত্যা করা হয়।

 

১৫ জি ৩০৮৩

২০-১১-৭১

২৪-১১-৭১ পাড়াগ্রাম ০৯৭২৪৭ এম/এস ৭৮ ডি/১ এ শত্রুরা গুলি করে ইসলামপুরের দিকে এস কিউ  ০৮২৪ এম/এস ৭৮/ডি/১ , হারমা এস কিউ ১০১৮  এম/এস ৭৮/ডি/৭ ২০০৪০০ নভেম্বর আগাতে থাকে। আমাদের বাহিনী তাদের জবাব দেয়। হতাহতের পরিমাণ জানা যায়নি। ইসলামপুরে এস কিউ ০৮২৪ এম/এস ৭৮/ডি পেট্রল ডিউটির সময় আমাদের ২ জন আহত হয়। রাজারাম্পুরে এস কিউ ০৯২৮  এম/এস ৭৮/ডি/৬ ৩ ইঞ্চি মর্টার দিয়ে ২১০৪৩০ নভেম্বর আক্রমণ করা হয়। ৯ পাকসেনা নিহত – ১ জন অফিসার সহ ৬০ জন রাজাকার  ও সি এ এফ নিহত হয়। ৩০ জন আহত হয়। আমাদের নিয়মিত বাহিনীর ৪ জন আহত ৩ জন নিহত হয়। গন বাহিনীর ২ জন নিখোঁজ হয়। ১২ রাজাকার ১৪ টি রাইফেল সহ আটক হয়। অস্ত্রের ক্ষতি – ৩০৩ রাইফেল ৬০ টি, এল এম জি ১ টি, ২ ইঞ্চি মর্টার ১ টি, এস এল আর ম্যাগাজিন ৮ টি, এল এম জি ম্যাগাজিন ৩ টি।
১৬ জি ৩০৮৮

২৫-১১-৭১

২৭-১১-৭১ ১৫ নভেম্বর দুবলি ব্রিজ ৪৫১৪ এম/এস ৭৮ ডি/১১ উড়িয়ে দেয়া হয়। ১৫ নভেম্বর বাঘের খালিতে এস কিউ ৪৩১৭ এম/এস ৭৮/ডি/১২ তে অ্যামবুশ করা হয়। শত্রুদের ৬ জন নিহত। আমাদের গন বাহিনীর ২ জন নিহত হয়।
১৭ জি ৩০৯১

২৫-১১-৭১

২৭-১১-৭১ ১৬/১৭ নভেম্বর রাতে মিসেরপুরে এস কিউ ৬২৮৬৪৭ এম/এস ৭৮/ডি/৬ শত্রু অবস্থানে আক্রমণ করে  ১২ জন হতাহত করা হয়। মহেশ কুন্ডিতে এস কিউ  ৬১১৬৮৭ এম/এস ৭৮/ডি/১৬ ১৬/১৭ তারিখ রাতে অ্যামবুশ করা হয়। শত্রুদের ৪ জন নিহত হয়। চরকাত্রায় এস কিউ  ০৬৮০৫৩ এম/এস ৭৮/ডি/৪ আমাদের একটি প্লাটুন শত্রুরা ঘিরে ফেলে। শত্রুদের ৩ জন নিহত হয়। আমাদের ২ জন নিহত ও ১ জন আহত হয়। ১ টি এস এল আর ও ৩ টি ম্যাগাজিন নষ্ট হয়। বাঘের খালিতে এস কিউ ৯৬১৬৮৮ এম/এস ৭৮/ডি /১৪ শত্রুদের  ১ জন নিহত হয়। ১০ নভেম্বর ৪ জন রাজাকার নিহত ও ৪ টি রাইফেল জব্দ করা হয়। একই রাতে ঈশ্বরদীতে টেলিফোন এক্সচেঞ্জ ৯৬০৩৭৫ এম/এস ৭৮ এইচ/৪ ধ্বংস করা হয়। এছাড়া সেখানে ভি আই পি হাউজে আক্রমণ করে ৩ জন এজেন্ট কে হত্যা করা হয়। ঈশ্বরদী তে ৯৬৫৭৪৫ এম/এস ৭৮এইচ/৪ বিহারি কলন ধ্বংস করা হয়। সেখানে ৫০ জন বিহারি নিহত হয়। আমাদের কেউ আহত হয়নি। ১৮ নভেম্বর বাঘেরখালির কাছে ১১ মিটার রেইলয়ে লাইন বিচ্যুত করা হয় ৯৬২৭১৫ এম/এস ৭৮ এম/৪।

 

১৮ জি ৩০৯৬

২৮-১১-৭১

২৯-১১-৭১ চারঘাট ৬১১৯২৬ এম/এস ৭৮/ডি/১১ একজন কুখ্যাত দালালের বাড়িতে আগুন দেয়া হয়। ২ রাজাকার আটক হয়। ২৫/২৬ নভেম্বর রাতে চারঘাট সারদা পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের টেলিফোন লাইন ধ্বংস করা হয়।
১৯ জি ৩০৯৪

২৭-১১-৭১

১-১২-৭১ মধুমালায় এস কিউ  ৩২৩২ এম/এস ৭৮/ডি/৬ ৯ নভেম্বর আক্রমণে ১ রাজাকার নিহত হয়। রাজাকার ক্যাম্প, পোস্ট অফিস ও থানা তহসিল অফিস পুড়িয়ে দেয়া হয়। ১২ তারিখ রাতে চকিরঘাটে রাজাকার ক্যাম্পে আক্রমণ করা হয় (ম্যাপে নির্দেশিত নাই) । ৪ রাজাকার নিহত হয়। ২ টি রাইফেল জব্দ করা হয়। ১৪ নভেম্বর মইন গ্রামে রাজাকাররা আমাদের আক্রমণ করে (ম্যাপে নাই), থানা – গোদাগারী ৭৪৪৬। ৮ রাজকার নিহত হয়। ৪ টি রাইফেল জব্দ করা হয়।
২০ জি ৩০৯৯

৩০-১১-৭১

১-১২-৭১ ২৮ নভেম্বর রাজাকাররা ৩ ইঞ্চি মর্টার নিয়ে নরেন্দ্রপুর কিউ এল ৬১৪৯ ষাঁড় নিতে আসে। আমাদের বাহিনী তাদের আক্রমণ করলে ষাঁড়গুলো রেখে তারা পালিয়ে যায়। ৬ রাজাকার নিহত হয়। আমাদের কোন হতাহত নাই।
২১ জি ৪০০১

১-১২-৭১

৩-১২-৭১ মুক্তিবাহিনী হরমা এলাকায় ৩০ নভেম্বর এস কিউ  ১০১৮ এম/এস ৭৮/ডি/৭ শত্রুদের আক্রমণ প্রতিহত করে। তাদের হতাহতের পরিমাণ যানা যায়নি। ২৩ নভেম্বর লালপুরে মুক্তিবাহিনী এস কিউ ৩৭১৪ একজন শত্রুদের এজেন্ট আটক করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বেইজে রাখা হয়। আরও ২ রাজাকার আটক ও নিহত হয়। রামগড়িতে এস কিউ  ৯৪৯৪ এম/এস ৭৮এইচ/৩  পাক সেনা ও রাজাকারদের উপর ২৮ নভেম্বর মুক্তিবাহিনী আক্রমণ করে। ৮ রাজাকার নিহত ও ৫ পাকসেনা আহত হয়। আমাদের ২ জন গনবাহিনীর সদস্য মারা যায়। সিঙরা থানা কিউ আর ০৬১৮ মুক্তি ফৌজের নিয়ন্ত্রণে আছে। 
২২ জি ৪০০৮

৪-১২-৭১

৫-১২-৭১ ১/২ ডিসেম্বর রাতে পদ্মা নদী পাড় হবার সময় ৫৫৪৯৮৫ এম/এস ৭৮ ডি/১১ শত্রুরা আক্রমণ করে। ২৫ নভেম্বর পাকশি ও ভেরামারায় একটি ফেরী ডুবিয়ে দেয়া হয় ৯৩৪৬৬২ এম/এস ৭৮ এম/৪। ২ জন পাকসেনাদের চর নিহত ৯৯৮৭২০ এম/এস ৭৮ এম/৪ জয়নগরে ৯৯২৭১২ এম/এস ৭৮ এম/৪ ২৬ নভেম্বর গন বাহিনী এম্বুশ করে। ৭ পাকসেনা নিহত হয়। ৪ রাজাকার আটক ও নিহত হয়। একটি চাইনিজ রাইফেল ও ৭ টি ৩০৩ রাইফেল জব্দ করা হয়। আমাদের কোন হতাহত নাই। ২৬ নভেম্বর মুক্তিবাহিনীর  মাইনে ফেরিঘাট ধ্বংস হয় ৯৪৩৬৬৫ এম/এস ৭৮ এইচ/৪। শত্রুদের ১ অফিসার সহ ৮ জন নিহত ও ৩ জন আহত হয়। ২৭ নভেম্বর ভালানপারা ব্রিজ ৯৯০৭১৩ এম/এস ৭৮ এইচ/৪ ধ্বংস করা হয়। রাজারামপুর ০৭২৮ এম/এস ৭৮ ডি/৬ ০৩১২৩০ ডিসেম্বর পাক প্রেসিডেন্টের ঘোষণার পর শত্রুরা আক্রমণ করে।