11

যুদ্ধ সংক্রান্ত গোয়েন্দা রিপোর্ট

Posted
শিরনাম উৎস তারিখ
৩৫। যুদ্ধ সংক্রান্ত গোয়েন্দা রিপোর্ট ৮ নং সেক্টরের দলিলপত্র ১৯৭১

 

ট্রান্সলেটেড বাই: Razibul Bari Palash

<১১, ৩৫, ৪৬৬ – ৪৭৭>

 

ক্রমিক নং

 

তারিখ

 

তথ্য অন্তর্ভুক্তির তারিখ

সূত্র নম্বর

ঘটনা
৬-১০-৭১ ডি কয় বয়ড়া

জী ০১৫৬

৬-১০-৭১

লাশ সনাক্ত করন – ৩৮ এফ এফ বর্নি ডিফেন্স, এডিশনাল কমান্ডো সুবেদার মোঃ আসগার (হাবিলদার মোঃ ইয়াকুব, সেপাই মোঃ সাফি ৩৮ এফ এফ ও সেপাই মোঃ আসগার এস্কাপ মৃত) গ্রেডিং ইনফো – এ – ১
১-১০-৭১ ফিন হেড কোয়ার্টার সি

১৩৬১/১৯/জি/ইনফ

৩০ সেপ্টেম্বর ৭১

 

বাংলাদেশের ভিতরের সকল মুজাহিদকে খাকি ইউনিফর্ম দেয়া হয়েছে সাথে বাঘের মাথা চিনহ হিসাবে দেয়া আছে। উপরোক্ত রিপোর্টটি চেক করুন ও মন্তব্য করুন। জি আই – এ ৩ (রিমার্ক – তথ্যটি সকল কয় কে জানানো নিশ্চিত করুন। কনফার্ম করে রিপোর্ট জমা দিন সি সেকশনে। তারিখ ১৪ অক্টোবর । নং – জে এস / এল-সি/ এক্স এক্স / জি)
৮-১০-৭১ বি কয় বানপুর

জি ০৭১৬

০৭ অক্টোবর ৭১

পাকসেনারা জালুস্ক এস কিউ ৭৪০৮ এম/এস ৭৯ এ/১৪ ও ফুলবাড়ি এস কিউ ৭৬০৬ এম/এস ৭৯ এ/১৪ স্থানে অবস্থান নিচ্ছে। জি আই – এ ১ (রিমার্ক – প্রতিবেদন জমা দেয়া হল)
১০-১০-৭১ এফ কয় শিকারপুর সূত্রে যানা যায় ভাটপারায় এস কিউ এম/এস ৭৯এ/৯ শত্রুরা সমবেত হচ্ছে। ফ্লাইং বার্ড চিনহিত একটি যান ঐ এলাকায় আসে। আরেকটিতে বাঘের মাথার চিনহ আছে। জি – আই – বি – ২
১০-১০-৭১ বি কয় বানপুর ইনফো রিপোর্ট ১ – ক) দৌলতগঞ্জ, জীবননগর, ইসলামপুর, গোপাল নগর, নারায়নপুর গ্রামে শত্রুরা সমবেত হচ্ছে। জি – আই – বি – ১

খ) বাঘের মাথা চিনহিত কিছু মুজাহিদ ও প্রায় ২০০ পাক পুলিশ ডিউটি করছে ঐ এলাকায়। জি আই – বি – ২

গ) ১৫ ডিভিশনের চিনহ দেয়া কিছু জিনিস দেখা যায়। জি – আই – বি -১

আর্টিলারি

ঘ) দৌলতগঞ্জ জীবন নগরে কিছু বন্দুক আছে। জি আই – বি – ১ 

 

২। ক) আর্টিলারিসহ হাসাদায় ১ ব্যাটালিয়ন পাক সেনা জমা হয়েছে। জি ১ – বি-১

খ) কাপাসডাঙ্গা ও নাতোদাহে পাকসেনারা প্রায় ১০০ বিহারি রাজাকার কে সরিয়ে নেয় যারা ডিউটিতে ছিল। জিয়াই – বি-২ নং – ৩ সাব সেক

১৩-১০-৭১ সোর্স রিপোর্ট ১। ৭ অক্টোবর জেনেরাল নিয়াজি হেলিকপ্টারে রাজশাহী পরিদর্শন করেন। তিনি স্থানীয়দের আশ্বস্ত করেন খুব অল্প সময়ে কলকাতা গারেরমাতে পৌছাবেন এবং সেখানে ঈদ উল ফিতরের নামাজ পড়বেন। জি আই – বি – ১

২। পাক সরকার সকল পাকসেনাদের আদেশ দেন অতি সত্বর মুক্তিযোদ্ধাদের দখলকৃত সকল মুক্ত এলাকা আবার দখলে নিতে। জি আই – বি-১

৩। পাকসেনারা রাজশাহীর মুক্ত এলাকা দখলে নেবার চেষ্টা করছে ৪ নং সাব সেকশন অনুযায়ী। তারা মহানন্দা নদী পার হয়েছে – সাথে হেভি আর্টিলারি আছে। তারা নিম্নক্তভাবে আগাচ্ছে –

ক) প্রথম স্তর হিসাবে স্থানীয় এলাকাবাসীদের জোর করে তাদের হাতে লাঠি, বল্লম ধরিয়ে দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে সাথে করে।

খ) রাইফেল সহ রাজাকার দের দ্বিতীয় স্তর হসাবে নিচ্ছে। 

গ) পিছনে পাকসেনারা তৃতীয় স্তর হিসাবে আগাচ্ছে। জি আই – বি – ১

 

১৩-১০-৭১ ডি কয় বয়রা কার্যক্রম – পাকসেনারা পুরাতন ছুটিপুর ডিফেন্স পজিশন খালি করে দিয়ে সেখান থেকে ৫০০ গজ দক্ষিণে নতুন অবস্থান গড়ে। জিয়াই – এ-১
১৩-১০-৭১ এফ কয়

শিকারপুর

কার্যক্রম – গণবাহিনী পির তলায় এস কিউ ৬৪৫১, সেহাইয়া এস কিউ ৬৮৫৪ , গোয়াল্গ্রাম এস কিউ ৬৯৫১ ও বোয়ালিয়ায় এস কিউ ৭১৫৩ এম/এস ৭৯এ/১৩ আক্রমণ করে ১০/১১ অক্টোবর রাতে। পরে শিকারপুর বেইজে ফিরে আসে। শত্রুরা রাস্তা আটকে দেবার চেষ্টা করে। জি আই – এ ১-
১৩-১০-৭১ সোর্স রিপোর্ট প্রাইভেট আর্মি –

ক) শ্রীপুরে কমান্ডার আকবর হোসেন সি ইউ সি র নেতৃত্বে ১৩০ জনের একটি দল পাকসেনাদের বিরুদ্ধে লড়ছে। তাদের ৫০ টি রাইফেল, ২ টি এল এম জি আছে। জি আই – বি-১

খ) প্রতি দলে ৪০/৫০ জনের ৬ টি দল নগরকান্দায় পাকসেনাদের বিরুদ্ধে  লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের ১৫০ টি রাইফেল, ৪ টি এল এম জি, ৬ টি স্টেন আছে। আজিজ মোল্লা তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। জি আই – বি-১

গ) ৬০/৭০ জনের আরেকটি দল শৈলকূপায় পাকসেনাদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। উইং অফিসার কামরুজ্জামান  তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। (এক্স পি এ এফ)। তাদের ৩৪ টি রাইফেল ও ২ টি স্টেন আছে। জি আই বি-১ , পাক নৌ কার্যক্রম।

১০ ১৫-১০-৭১ সে সেক্টর হেডকোয়ার্টার থেকে ১। তথ্য আসে যে পাকসেনারা পেট্রোল ক্রাফট ও গান বোট নিয়ে বরিশাল, নারায়ণগঞ্জ, হারতা, চালনা, নীলকমল, হিজলা দ্বীপ ও ভাগ্যকুলে টহল দিচ্ছে।

২। মংলা, চালনা, খুলনাতে গুরুত্তপূর্ন জাহাজ পাহারায় চলছে। 

৩। সুর্যাস্তের পর জেলেদের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করা হয়েছে চট্টগ্রামে। পাক নেভি সেগুলো চেক করছে।

১১ ১৫-১০-৭১ সোর্স রিপোর্ট ১। দসাতিনাতে এস কিউ ৯৩৫৪ এম/এস ৭৯ই/৪ ১২ অক্টোবর ২ টি ৮১ মিঃ মিঃ মর্টার নিযুক্ত করা আছে। 

২। ৩৮ এফ এফ এর ৭ জন মাস্লিয়া তে এস কিউ ৮৬৬৬ এম/এস ৭৯এ/১৬ তে অবস্থান করছিল । জি আই এ-১

৩। হেডকোয়ারটারের ১ ব্যাটালিয়ন হান্সাদহ এস কিউ ৭৩৮৬ এম/এস ৭৯ এ/১৫ (সম্ভবত ২৭ ব্যাটালিয়ন) অবস্থান করছিল। জি আই এ-১

৪। ঝিকরগাছায় এস কিউ ৯৮৩০ এম/এস ৭৯ ই/৪ ও কাবদাখ নদীতে পাকসেনারা অবস্থান নিয়েছে। জি আই – এ-১

৫। ২ ট্রাক ভর্তি রাজাকার ১১১২৩০ অক্টোবর চৌগাছা থেকে আনা হয় স্কুল বিল্ডিং থেকে জিনিসপত্র নিকটবর্তি কোন স্থানে নেবার জন্য । জি আই বি – ১

১২ ১৮-১০-৭১ সি কয় বেতাই শত্রু অবস্থান –

ক) কামদেবপুরে জি আর ৪৫৪৩৪৫ এম/এস ৭৯এ/৯ পাকসেনা, রাজাকার, ১০০ বাঙ্গালী, মুজাহিদ বাহিনী – ৫০। জি আই – এ -১

খ) কালাচাদপুর জি আর ৪৬৩৩৪৩ এম/এস ৭৯এ/৯ পাকসেনা – ৫০ সাথে হেড কোয়ার্টার কয়, রাজাকার – ১৫, জি আই এ-১

গ) নাতুদুহ জি আর ৫১৮১৫৭ এম/এস ৭৯এ/১০। পাকসেনা – ৬২, রাজাকার ০ মিজাহিদ – ১০০। জি আই এ-১

ঘ) মেহেরপুর কলেজে প্রচুর শত্রু সমাবেশ হয়েছে। জি আই – এ -২

১৩ ১৮-১০-৭১ সোর্স রিপোর্ট বয়রা বয়রা –

ক) চৌগাছায় স্পেশাল ইউনিট এস কিউ ৯০৬৯ এম/এস ৭৯ই/৩ ১৫ অক্টোবর আছে। সেখানে সাধারণ জনগণের উপর হেভি শেলিং করা হয়। ক্ষয়ক্ষতির জন্য জনসাধারণের ক্ষোভ ভারত ও মুক্তি বাহিনীর উপর পরে। জি আই এ-১।

খ) সিনহাঝুলি এস কিউ ৯৪৬৭ এম/এস ৭৯ই/৪ তে শত্রুরা বাংকার খনন করছিল। দস্তানিয়া এস কিউ ৯৩৫৩ এম/এস ৭৯ই/৪ তে নতুন ফোর্স আসছিল। জি আই – এ-১

১৪ ২০-১০-৭১ ডি কয় বয়রা শত্রুরা চৌগাছার পরিবর্তে ফুলছারায় এস কিউ ৯৭৬৫ এম/এস ৭৯ই/৪ ও গোবিন্দপুরে এস কিউ ৯৯৫৯ এম/এস ৭৯ই/৪ শত্রুরা নতুন অবস্থান তৈরি করে। জি আই – এ-১
১৫ ২১-১০-৭১ ডি কয় বয়রা চৌগাছা এস কিউ ৯০৬৯ এম/এস ৭৯ই/৩ ঢেকিপোতা রাস্তা এস কিউ ৬৭৬৫ এম/এস ৭৯/এ/১৬ স্থানীয় লোক দিয়ে উন্নতি সাধন করা হয়। মাস্লিয়াতে মাইন পোতা হয়। জি আই এ-১
১৬ ২১-১০-৭১ ই কয় হাকিমপুর ১। প্রায় ২০০ রাজাকার চট্টগ্রাম যাবার জন্য খুলনা ছাড়ে। ৪ টি ট্রাকে পাহারা দিয়ে পাকসেনারা তাদের নিয়ে যায়। জি আই বি-২

২। বাসাতপুরে এস কিউ ৮৩৩২ এম/এস ৭৯বি/১৩ ২৩ অক্টোবর শত্রুরা সমবেত হতে থাকে। আমাদের আক্রমণ পথ বন্ধ করা তাদের উদ্যেশ্য।

৩। কলারোয়া থানায় স্থানীয় পাক দালালরা গোপন মিটিং করেছে। আত্তসমর্পনের নামে রাজাকাররা মুক্তিফৌজকে অ্যামবুশ করার চক্রান্ত করছে। জি আই এ-১

১৭ ২৫-১০-৭১ সোর্স রিপোর্ট ক) দোউলতগঞ্জে প্রায় ২ কয় সৈন্য এস কিউ ৪৭৮৮ এম/এস ৭৯ এ/১৫ জমা হয়েছে। জি আই বি – ১

খ) ২ প্লাটুন সৈন্য ও ৭০ রাজাকার হাসাদাহ ৪৩৯৮৭১ এম/এস ৭৯এ/১৫ ও ৭০ জন রাজাকার আচল বাড়িয়াতে ৭৭৪৯৫৯ এম/এস ৭৯এ/১৫ এবং উথালি এস কিউ ৭১৯৭ এম/এস ৭৯এ/১৫ তে দেখা গেছে।

গ) ভোমরাতে ভারী যানবাহন চলাচল দেখা যায় ২৪/২৫ অক্টোবর রাতে। জি আই বি – ১

 

১৮ ২৭-১০-৭১ সোর্স রিপোর্ট ক) সোর্স জানায় দর্শনায় ২৫ অক্টোবর ১৮ পঞ্জাবের বদলে ১২ পাঞ্জাব দায়িত্ব নিয়েছে। জি আই – বি-১

খ) একটি পাক হেলিকপ্টার ২৫ অক্টোবর দর্শনার উপর দিয়ে উড়ে যায়। জি আই বি – ১

১৯ ২৮-১০-৭১ সোর্স রিপোর্ট লে জেনারেল নিয়াজি জি ও সি ইস্ট কমান্ড হান্সাদহ এস কিউ ৭৩৮৭ এম/এস ৭৯এ/১৫ ২৪ অক্টোবর পরিদর্শন করেন ১০০০ টায়। জি আই এ-১
২০ ২৯-১০-৭১ ডি কয় বয়রা

কিউ ০০৪৭

গন বাহিনীর হাফিজ কিছু টাকা ও ১ কেজি ২৫০ গ্রাম সোনা আজ বোয়ালমারী ব্যাংকে জমা করেছেন।
২১ ২৯-১০-৭১ সোর্স রীপোর্ট ১। সোর্স জানায় যে পাকবাহিনী এখানে নিম্নোক্ত ব্যাবস্থা গ্রহণ করেছে –

ক) বদর বাহিনী – এই বাহিনীর পাঞ্জাবি, বিহারি ও বাঙ্গালী নিয়ে গঠিত। এদের সবাই শিক্ষিত ও ট্রেনিং প্রাপ্ত। এদের বেশীর ভাগ রাজাকার ও মুজাহিদ দের থেকে বাছাই করা। তাদের পোশাক মিলিশিয়া. তাদের মাসিক বেতন ১৫০ রুপি। এই বাহিনীকে খুলনা, ফরিদপুর, কুষ্টিয়া ও যশোরের  স্থানীয় রাজাকারদের সাথে নিয়োজিত রাখা হয়েছে। (জি আই – এ ১ )

খ) আলফাতাহ বাহিনী – এটি মাদ্রাসা ও মৌলভিশিক্ষার ছাত্রদের নিয়ে গঠিত। তাদের পোশাক সিভিল ( সাদা পাজামা – পাঞ্জাবি)। এই বাহিনী গোপালগঞ্জ সাব- ডিভিশনে ও খুলনা জেলায় নিয়জিত। জি – আই – এ-১

২। সোর্স পারসন জানায় রাজাকারদের কয়েক জনকে চট্টগ্রামে পাঠানো হয়েছে জাহাজে করে পশ্চিম পাকিস্তান পাঠানোর জন্য।

জি আই – এ-২

৩। জানা যায় ৮৭ কোটি রুপি খুলনা স্টেট ব্যাংক থেকে এবং ১১ কোটি রুপি কুষ্টিয়া ন্যাশনাল ব্যাংক থেকে পশ্চিম পাকিস্তানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

জি – আই – এ ২

২২ ৩০-১০-৭১ বি কয় বানপুর জি ০৭১১

৩০-১০-৭১

১। শত্রু চলাচল – ২৬ অক্টোবর বিকালে চুয়াডাঙ্গা থেকে যশোরে ৩ ট্রাক পাকসেনা নেয়া হয়। সম্ভবত ১৮ পাঞ্জাবের বদলে ১২ পাঞ্জাব কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। জি আই – এ-১

 

২। খবর আসে যে, ন্যাশনাল ব্যাংকের যশোর ও চুয়াডাঙ্গা শাখা থেকে সকল টাকা ১০ দিন আগে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। জি আই – এ-২

২৩ ১-১১-৭১ এইচ কয়

বনগাঁও

সোর্স রীপোর্ট

১। সোর্স জানায় শত্রুদের ১০ বাই ১০ ফিট চওড়া একটি ট্যাঙ্ক আটকে ছিল। জি আর ৮১২৪৩৮ এম/এস ৭৯এ/১৬ জি আই এ-১

২। স্থানীয়দের দিয়ে কাকমারি এস কিউ ৭৯৫৪৩৩ এম/এস ৭৯এ/১৬ থেকে এস কিউ ৮০৩৬ এম/এস ৭৯এ/১৬ পর্যন্ত রাস্তা উন্নয়ন করে পাকসেনারা। তাছাড়া বাঘাছারা জি আর ৮৫৮৩৩৩ এম/এস ৭৯বি/১৩ থেকে গোগা জি আর ৭৬৫৩১৯   এম/এস ৭৯বি/১৩ উন্নয়ন করে। গোগা জি আর ৭৬৫৩১৯ এম/এস ৭৯বি/১৩। জিয়াই এ-১

৩। সোর্স জানায় শুত্রুদের বন্দুক ১ আর্টিলারি এর অবস্থান নিম্নরূপ –

দুটি আর্টিলারি গান ৮০৮৪৩৭ এম/এস ৭৯এ/১৬ এবং ৮৩৩৪৩৭ এম/এস ৭৯এ/১৬। একটি আর আর – এস কিউ ৮২৪৩ এম/এস ৭৯এ/১৬ ও ৪ টি এম জি। এলং রুট এস কিউ ৮২৮৩  এম/এস ৭৯এ/১৬। জি-১, সি২-

২৪ ২-১১-৭১ বি কয়

বানপুর

শত্রুরা এন্টি ট্যাংক ডিচ তৈরি করছে আখদাবারিয়া এস কিউ ৬৮৯৮ এম/এস ৭৯এ/১৪ থেকে উথালি এস কিউ ৭০৭৯ এম/এস ৭৯এ/১৪ পর্যন্ত। ডিচ গুলো ১৫-২০ ফুট লম্বা ৮-১০ ফুট চওড়া। জি আই এ-১
২৫ ৫-১১-৭১ সোর্স রীপোর্ট ১। যশোর ও খুলনা শহরে অনেক ইসুজু ট্রাক দেখা যায়। জি আই – বি-১

২। খুলনা জে টি নং ৭ এ জনসাধারণের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়। কারণ এই জে টি দিয়ে সকল মিলিটারি সাপ্লাই আসে। জি আই বি-১

৩। সমুদ্রগামী একটি ইউ এন জাহাজ প্রচুর বস্তা ও কাঠের প্যাকেজ নিয়ে ভৈরব নদীতে দেখা যায়। খুলনা। জি আই – বি-১

৪। প্রতি সাব ডিভিশনে ও জেলায় পাক সরকার একটি কম্পোজিশন অফিস খুলেছে। সরকার সবাইকে দুষ্কৃতিকারীদের দ্বারা সঙ্ঘটিত ক্ষয়ক্ষতির একটি তালিকা ও মূল্য নির্ধারন করে জমা দিতে বলেছে। জি আই সি-২  

২৬ ৫-১১-৭১ ডি কয় বয়রা ১। ৩ টি লাশ উদ্ধার। নং – ২৮৮৬৭০২ সেপাই নাযুর হোসেন ৩৮ এফ এফ। ২৬৯১১৭ সেপাই সুলতান আলুইনেদ ও সেপাই মাহবুব হোসেন ই পি সি এ এফ। মাছলিয়া থেকে ডকুমেন্ট উদ্ধার। সি ও ডি কয় ৩৮ এফ এফ রেজিমেন্ট। এলিমেন্ট ১৫ উইং ২ পাই ই পি সি এ এফ মাস্লিয়া। সাঞ্চাডাঙ্গা ও বামী। শত্রু অবস্থান। জি আই ডি -১
২৭ বি কয় বানপুর জানা যায় ২ জন পাক আর্মি মেজর দর্শনায় আছে। মেজর রাণা ও মেজর আজম খান। জি আই সি ২
২৮ সোর্স রিপোর্ট চুয়াডাঙ্গা থেকে মুন্সিগঞ্জ এস কিউ ৭৭২৪ এম/এস ৭৯এ/১৪ পর্যন্ত পাকসেনারা কারফিউ দেয়। জি ১ বি-২
২৯ এফ কয় শিকারপুর ধর্মদাহ এস কিউ ৬২৫৫   এম/এস ৭৯এ/১৩ থেকে ০৫১৯০০ নভেম্বর ৪ জন রাজাকার আটক হয়। সাথে ২ টি এ পি মাইন ছিল। জি আই এ-১
৩০ সোর্স রিপোর্ট ছুটিপুরে শত্রুরা নভেম্বরে প্রতিরক্ষা শক্তি বৃদ্ধি করে। জি আই এ-১
৩১ ১৩-১১-৭১ এফ কয় শিকারপুর ধর্মদাহ লাশ থেকে দরকারি কাগজ উদ্ধার। ২১ পাঞ্জাব সি কয় ৭ পাই অবস্থান সনাক্ত হয়েছে প্রাগপুরে। জি আই ডি-১
৩২ ১৪-১১-৭১ সাব সেকশন ৪ লালগোলা ক) জয়ন্দিপুরে এস কিউ ৯৮৩০ এম/এস ৭৮ ডি/২ শত্রু চিনহিত সাথে পশ্চিম পাকিস্তানী মিলিশিয়া দেখা যায়। জি আই – এ-১

খ) ইসলামপুরে এস কিউ ০৮২৪ এম/এস ৭৯ডি/১ শত্রু কয় সনাক্ত সাথে ৩ ইঞ্চি মর্টার কিছু মিলিশিয়া দেখা যায়। জি আই এ-১

গ) বারো রাশিয়া এস কিউ ০৫২৪ এম/এস তে কিছু রাজাকার মিলিশিয়া সমবেত হয়েছে। জি আই এ-১

ঘ) একটি পাঞ্জাব রেজিমেন্টের প্রোগ্রাম হবে ০৮২৫ এম/এস ৭৮ ডি/৬ সাথে ৮১ ৩০ ব্রাওনিং জি আই এ-১

৩৩ ১৬-১১-৭১ ডি কয় বয়রা ১১। আগে ৫/৬ নভেম্বর ৪০ টি ট্যাংক যশোর ক্যান্টনমেন্ট থেকে চলে যায়। জি আই সি-২

২।

ক) ২২ এফ এফ এর একটি কয় নাভারন আছে।  কিউ টি ৮৮৪৪ জি আই এ-১

খ) সি কয় এর ২২ এফ এফ রেজিমেন্ট ছুটিপুরে আছে। কিউ টি ৯৩৫৮  আছে জি আই এ-১

গ) ৩৮ এফ এফ এর এলিমেন্ট চৌগাছা এস কিউ জি আই এ-১ আছে।

ঘ) ৩৮ এফ এফ এর সি ও ডি কয় মাস্লিয়া এস কিউ বর্নি তে ও সানেহা ডাঙ্গা তে আছে।

৩। নিম্নোক্ত ১০৭ ব্রিগেডের ফোর্স যশোর ক্যান্টিন্মেন্টে আছে – ২১ পাঞ্জাব রেজিমেন্ট ২২ এফ এফ রেজিমেন্ট, ৩৮ এফ এফ রেজিমেন্ট ৩০ এস ও টি বি এন । ৫৫ এফ ডি রেজিমেন্ট ১০ ইঞ্জিনিয়ার বি এন। ৭১ ম্যাড ব্যাটালিয়ন। ৭ এফ ডি অ্যামবুশ। ১৮ এম আই ২৭ সিগনাল ব্যাটালিয়ন, ৫৮ ই এম ই বি এন ও ১৪০ ইনফ ওক্সফ জি আই সি – ২

৪। ৫৭ ব্রিগেডের নিম্নোক্ত ফোর্স ঝিনেদা আছে – ১৬ পাঞ্জাব রেজিমেন্ট ৮ বালুশ রেজিমেন্ট ১৮ পাঞ্জাব রেজিমেন্ট ২৫ এফ এফ রেজিমেন্ট ৪৯ এফ ডি রেজিমেন্ট ৬১৪ এফ আই ইউ ও ৪০৯ জি এইচ কিউ এফ আই ইউ জি আই – সি -১

৫। ৩ এক্স ২৫ পি ডি আর গান চৌগাছায় যেতে দেখা যায়। ২ ট্রাক ভর্তি সৈন্য ছিল। জি – আই বি-১

৩৪ ১৬-১১-৭১ সাব সেক্টর ৪ লাল গোলা বাজুমারা ৬৫৭১ ও ৬৬৭১ এম/এস ৭৮ডি/১২ এবং চিলমারি ৬১৭০ ও ৬২৭০ এম/এস ৭৮ডি/১২ জি আই বি-১ অবস্থান চিনহিত।
৩৫ ১৬-১১-৭১ ৯ সেকশন টাকি ১। ১৪ নভেম্বর পাক ট্রেনিং প্রাপ্ত জামাতে ইসলামি ২ কয় ধরা পরে। তারা যশোর ক্যান্টনমেন্ট ও সাতক্ষীরায় ৭ মাস ট্রেনিং নিয়েছে। বশিরহাট টাকিতে তারা ৩ টি এ টি কে মাইন পুতে। মাধাইম এ ৩ টি চার্জ বসানো হয় রেল লাইনে। একটি ভারতীয় ট্রেন সামান্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়। (জি আই- ডি-১)

২। আরও ১৬ জন শত্রু বর্ডার ক্রস করেছে। সাথে ৪ টি এল এম জি ছিল। আরও ছিল ২ ইঞ্চি মর্টার ৩ টি ও অটো অস্ত্র। তাদের এখনো অবস্থান জানা যায়নি। ডি-১

৩৬ ১৬-১১-৭১ সোর্স রিপোর্ট ১। কুষ্টিয়া পুলিশ লাইনে প্রায় ১০০০ পাক আর্মি আছে ( সুবেদার সাফদার বালুস রেজিমেন্ট)

২। মাগুরা – পি টি আই তে ১ কয় আর্মি আছে। কমান্ডার ক্যাপ্টেন নিয়াজি ডাকবাংলোতে আছেন। সি-২

৩। প্রায় ১০০ টি মিলিশিয়াদের যান দেখা যায়। খুলনার  জেটি ৭ এ জাহাজে এগুলো ভর্তি ছিল। এম টি যানে অ্যাংকর চিনহ ছিল নং – ৪৪৮ অ ৪৩৮। এটি এফ এফ রেজিমেন্ট  থেকে ট্রুপ্স বহন করছিল। (লাল গোলাকার ব্যাকগ্রাউন্ড টুপি ও ব্যাজ, কালো ওয়েব ইকুইপমেন্ট)। খুলনায় কিছু পাঞ্জাব ব্যাটালিয়নের সৈন্যও দেখা যায়। জি আই – বি-১

৪। খুলনা বয়রা কমিশনারের অফিসের কাছে মুজাহিদের হেড কোয়ার্টার আছে। জি আই বি-১

৫। খুলনা টুতপারা ভূতের বাড়ি এক্স আনসার হেড কোয়ার্টারে রাজাকারদের হেড কোয়ার্টার অবস্থিত। জি আই বি-১

৬। ই পি সি এর হেডকোয়ার্টার খুলনা রুপ্সাঘাটে ( এক্স ই পি আর লাইন) অবস্থিত।  জি আই বি-১   

৩৭ ১৮-১১-৭১ সোর্স রিপোর্ট ১। নভেম্বর ৭১ এ ৯ নং সেক্টরের লে জিয়া ৫ কেজি সোনা উদ্ধার করেন বাংলাদেশের ভেতর থেকে। এগুলো মেজর আব্দুল জলিলের কাছে (৯ নং সেক্টরের কমান্ডার) জমা দেয়া হয়। জি আই এ-১

২। ৯ নং সেক্টরের বাহিনীর কিছু সদস্য  একটি দেশী নৌকা থেকে ৮০০ মন চাল উদ্ধার করে। এগুলো বাকুন্দিয়া মুক্তি ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়। নভেম্বর ৭১। জি আই এ- ১

৩৮ ১৮-১১-৭১ বি কয় বানপুর জি ০১১৬ ১৪-১১-৭১ ঈগল থেকে – নিয়মিত বাহিনী ও গন বাহিনী ১২ নভেম্বর আলমডাঙ্গা ন্যাশনাল ব্যাংক আক্রমণ করে ৮০ হাজার পাক রুপি ও ৩০ টি সোনার বার উদ্ধার করে। জি আই এ-১
৩৯ ১৯-১১-৭১ সি কয় বেতাই ডি কয় বয়রা লালগোলা ১। পাকসেনাদের সাথে আলবদর বাহিনী গান্রাবারিয়া ৫০৪০ এম/এস ৭৯ এ/৯ এ থাকে – দনের বেলা ছিল। পরে ভাট পারা ৫৬৩৮ এম/এস ৭৯এ/৯ চলে যায়। জি আই এ- ১

১। বিশ্বপারা ও মচিপারা এস ই ও / চুয়াডাঙ্গা ডাকবাংলো কিউ টি ৯২৬৯ তে শত্রুরা জড়ো হয়। জি আই এ-১

২। দিঘলসিঙ্ঘা তে ৮৯৬৬ এম/এস ৭৯ ই/৪ শত্রুরা অবস্থান নেয়। জি আই এ-১

তারা বাজুমারা ও চিল্মারি খালি করে দেয়। জি আই এ-১

৪০ ২০-১১-৭১ ডি কয় বয়রা পাকসেনারা সেলুয়া ও জগতি গ্রামবাসীদের খুব  দ্রুত এলাকা ছেড়ে যেতে বলে। ১৮০৫০০ নভেম্বর  তারা সেখানে কারফিউ জারি করে।  জি আই এ-১
৪১ ২১-১১-৭১ ডি কয়

বয়রা

১। প্রায় ২০০ পাকসেনা আমঝুপি ৫৩২৮ এম/এস ৭৯ এ/১০ বারাদি ৫৮২৫ এম/এস ৭৯এ/১০ তে মেহেরপুর থেকে এসে জড়ো হতে থাকে। জি আই এ-১

২। ৩০ জন রাজাকার ও ১ জন নায়েক সুবেদার মেহেরপুর পাওয়ার হাউজের কাছে ৪৯৩২ এম/এস ৭৯এ/৯ দেখা যায়। প্রায় ৮০ জন পাকসেনা ভোকেশনাল ইন্সটিটিউট ৪৮৩১ ও কবরস্থানে ৪৮৩০ এম/এস ৭৯এ/৯ ৪ টি জীপ ৪ বাই ৩ টোনার দেখা যায়। জি আই এ-১

৩। যাদবপুর ঘাটে ৪৭৩০ এম/এস ৭৯এ/২ পাকসেনা ও একজন নায়েক সুবেদার দেখা যায়। একটি আর আর কামদেবপুরে আছে ৩৫৩৩। জি আই এ-১

৪। ১৬ নভ ২২ এফ এফ ও ২৮ এফ এফ চৌগাছায় অবস্থা নেয়। ৩৮ এফ এফ সেখান থেকে বদলি হয়ে নভারন যায়। জি আই এ-১

৫। ১৮ নভেম্বর থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত সকল যান চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। চৌগাছা যশোর রাস্তা পুরো বন্ধ করে দেয়া হয়। জি আই এ-১ 

৪২ ২৩১৯১৫ রেডিও বাংলাদেশ ২৩১৪০০ নভেম্বর ৭১ পাক সরকার দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে। জি আই এ-১
৪৩ ২৩১৯১৫ আকাশবাণী ২৩১৪০০ নভেম্বর ৭১ পাক সরকার দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে। জি আই এ-১
৪৪ ২৩-১১-৭১ সোর্স রিপোর্ট ১। মিরপুরে ৮৭৫০ এম/এস ৭৯ই/১ বুল ডোজার দেখা যায়। কোন ট্যাংক ছিলোনা । জি আই এ-১

২। মেহেরপুরের সকল পাকসেনাদের সরিয়ে নিয়ে চুয়াডাঙ্গায় রাখা হয়। জি আই এ-১

৪৫ ২৫-১১-৭১ ডি কয় বয়রা ১। ২৪ নভেম্বর বাঘাছড়ায় বাংলাদেশের পতাকা টানানো হয়। ছুটিপুর, দোস্তানিয়া ও রঘুনাথপুর থেকে শত্রুদের খালি করা হয়। আমাদের সৈন্য সেই এলাকাগুলো দখল করে। জিয়া ই এ-৩
৪৬ ২৫-১১-৭১ সি কয় বেতাই

বি কয় বানপুর

এ কয় গোজাডাঙ্গা

১। মেহেরপুরে ২ কয় পাকসেনা আসে। একটি ১২ পাঞ্জাব থেকে আর অন্যটি ১৮ পাঞ্জাব থেকে,

ক) ২০ রাজাকারসহ ১ পাই পাকসেনা মেহেরপুর পাওয়ার হাউজে অবস্থান নিয়েছে ৪৮৮৩২২ এম/এস ৭৯এ/৯।

খ) ৫০ রাজাকার সহ ২ পাই পাকসেনা মেহেরপুর কলেজ ও ভোকেশনাল ইন্সটিটিউটে ৪৮৩১ এম/এস ৭৯এ/৯ অবস্থান নিয়েছে।

গ) মেহেরপুর কর্মরত ১ সেকশন পাকসেনা ৪৭৭৩০৩ এম/এস ৭৯এ/৯ অবস্থান করছে।

ঘ) ২০ রাজাকারসহ ১ পাই পাকসেনা যাদবপুর ঘাটে ৪৬৩০ এম/এস ৭৯এ/৯ অবস্থান নিয়েছে।

ঙ) আর আর সহ পাকসেনারা কামদেবপুর ঘাটে ৪৫৩৩ এম/এস ৭৯এ/৯ অবস্থান নিয়েছে। 

চ) গবিপুরে ৪৬৩২ এম/এস ৭৯এ/৯ শত্রুরা অবস্থান নিয়েছে। জি আই

১। শত্রুরা মাগুরা শ্রীপুরে এয়ার স্ট্রিপ বানিয়েছে ৯৪০৩৫৫ এম/এস ৭৯ই/৭ – এটি প্রাইমারী টিচার্স ট্রেনিং ইন্সটিটিউটের কাছে। জি আই বি-২

সাতক্ষীরা ৯৬৫২২০ এম/এস ৭৯এফ/২, মহাম্মাদপুর ৮৮৩৯৮৬ এম/এস ৭৯এফ/২ আলিপুর ৯০১৯৮৮ এম/এস ৭৯এফ/২, গাংনি ৮৬৩৯৯২ এম/এস ৭৯ বি/১৪, নাবাতকাটি ৮৫৪৯৭৪ এম/এস ৭৯বি/১৪, শ্রীরামপুর ৮৬৫৯৪৫ এম/এস ৭৯বি/১৪ স্থানে শত্রুদের অবস্থান চিনহিত। জি আই বি-১

২। কুলিয়া ব্রিজ ৮৬৩৯৪৩ ৭৯ বি ব্রিজ উড়িয়ে দেয়া হয়। জীপ যেতে পারবেনা। তবে হেঁটে যাওয়া যাবে। জি আই সি – ২

৪৭ ২৬-১১-৭১ সোর্স রিপোর্ট ১। ঝিনেদা ক্যাডেট কলেজে শত্রুরা প্রচুর গোলাবারুদ পায় কিউ পি ০৮০৫

২। নবারন পুরাতন বাজার ৮৮৪৪ এম/এস ৭৯ই/৪ বেনাপোল যশোর রাস্তায় শত্রুরা কিছু এমও পায়। জি আই সি – ২

৩। ঝিনেদা ক্যাডেট কলেজ হেড কোয়ার্টারে ২ জন বাঙ্গালী অফিসারকে ই এম ই রেজিমেন্টে নিয়োগ দেয়া হয়। জি আই সি-২

৪৮ ২৮-১১-৭১ সোর্স রীপোর্ট ১। বিশ্বস্ত সূত্র থেকে নিচের খবর পাওয়া যায় – জি আই এ-১

ক) গাংনি ব্রিজে ৮৬২৯৮১ এম/এস ৭৯বি/১৪ প্রায় ৫০ জন পাকসেনা আছে। 

খ) আলিপুর ৯০৯৯ এম/এস ৭৯এফ/২ ৫০ রাজাকার সহ ৭৫ জন পাকসেনা আছে। 

গ) পুশপকাটি তে ৮৮৯৬ এম/এস ৭৯এফ/২ ৭৫ রাজাকার সহ ১৫০ জন পাকসেনা ছিল। 

ঘ) মোহাম্মাদপুরে ৮৭৯৮ এম/এস ৭৯এফ/২ ১০০ রাজাকার সহ ১৭৫ জন পাকসেনা ছিল। 

ঙ) সাতক্ষীরা শহরে ৯৫০১ এম/এস ৭৯ এফ/২ ২০০ রাজাকার সহ ৩০০ পাকসেনা ছিল।

চ) বাঁকাল ব্রিজে ৯২৭৯৯৮ এম/এস ৭৯ এফ/২ ৫০ রাজাকার সহ ১৫০ জন ছিল। জি আই এ-১

২। জানা যায় যে, সাতক্ষীরায় সকল জনসাধারণের বাহন দখল করে নেয় পাকসেনারা। জি আই এ-১

৩। সাতক্ষীরার কারফিউ বন্ধ করা হয়। জি আই এ-১

৪। শত্রুদের মনোবল মারাত্মক হ্রাস পেয়েছে। জি আই এ-২

 

 

৪৯ ২৩-১১-৭১ এফ কয় শিকারপুর

জি ০০৬২

২২-১১-৭১

১২ নভেম্বর গণবাহিনী আলমডাঙ্গা ন্যাশনাল ব্যাংক দখল করে। ব্যাংকের ম্যানেজার আত্ম সমর্পন করে ও ৮৩০০ টাকা ও ৭ টি ছোট কাপড় দিয়ে সিল করা ব্যাগ দেয়। এগুলো কয় হেড কোয়ার্টারে রেখে দেয়া হয়। মন্তব্য – টাকা  ও সিল করা ব্যাগ ৮ নং সেকশন হেড কোয়ার্টারে জমা দেয়া হয় – সুবেদার মজিদ মোল্লা এগুলো নায়েক সুবেদার আইয়ুব আলি সিগের কাছে জমা দেন – তারিখ ছিল ২৮-১১-৭১
৫০ ২৮-১১-৭১ সি কয় বেতাই ১। ২৬১০০ নভেম্বর ৭১ ২ টি জীপে ৪ বাই ৩ টোনার লোড করে মেহেরপুর ত্যাগ করে চুয়াডাঙ্গার দিকে যায়। একটি বেসামরিক ট্রাকে ১২ জন রাজাকার গাইড হিসাবে যায়। জি আই বি-২
৫১ বি কয় বানপুর জীবন নগর সম্পূর্ন মুক্ত হয়। জি আই – এ – ১
৫২ ৬-১২-৭১ সি কয় ১। ৪৩ জন বিহারি ও ৭ জন রাজাকার ৪৭২৭ এম/এস ৭৯এ/১০ স্থানে নিযুক্ত করা হয়। জি আই এ-২

২। ভাটিয়া কিউ উ ৬৬৬৪ থেকে শত্রু সেনাদের নিয়ে যাওয়া হয়। ২ টি লঞ্চে করে ২৮ নভেম্বর তাদের নেয়া হয়। জি আই এ-১