4

বাংলাদেশ পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্রিটিশ পত্রিকার ভুল প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ অ্যাসোসিইয়েশন, স্কটল্যান্ডের বক্তব্য

Posted

<৪,৩২,৫৪>

অনুবাদকঃ উম্মে তৈয়বা নিশাত

শিরোনাম সূত্র তারিখ
৩২। বাংলাদেশ পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্রিটিশ পত্রিকার ভুল প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ অ্যাসোসিইয়েশন, স্কটল্যান্ডের বক্তব্য প্রচারপত্র ৬ মে, ১৯৭১

 

ইয়াহিয়াকে সাহায্যের জন্য সাংবাদিকদের ষড়যন্ত্র

“দি সানডে টাইমস” গত সপ্তাহান্তে পাকিস্তান থেকে একটি বিস্ময়কর প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এটি সাম্প্রতিক যুদ্ধকালীন সময়ে পশ্চিম পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর মধ্যকার এযাবৎকালের একটি অপ্রকাশিত বিদ্রোহের বিস্তারিত প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়: ১০ দিন একসাথে থাকার পর পূর্ব পাকিস্তানের বিস্তারিত খবর পাকিস্তানি সেনাদের মধ্যকার একটি ব্যাপক ও প্রায় সফল বিদ্রোহ এবং হাজার হাজার অবাঙালি নারী, পুরুষ ও শিশুদের পাশবিক হত্যাকাণ্ডের খবর উন্মোচন করেছে।

এটা ছিল পাকিস্তান সেনাবাহিনীর দ্রুত প্রতক্রিয়া, কঠিন শৃঙ্খলা এবং সঠিক নেতৃত্ব, যা সেনাবাহিনীকে    বিদ্রোহীদের কাছ থেকে সেই বৃহষ্পতি ও শুক্রবারে রক্ষা করেছিল।

এটি একটি কৌতুহলোদ্দীপক ঘটনা, কিন্তু বাংলাদেশে অবাঙালিদেরকে হত্যা করার প্রতিবেদনগুলো সম্পূর্ণ    ভুল ছিল। প্রতিবেদনটির লেখক হলেন অ্যান্থনি ম্যাসকারেনহাস, যিনি করাচীর “মর্নিং নিউজ” পত্রিকার    সম্পাদক, যেটি সরকার পক্ষের পত্রিকা, যা আসলে সরকারের কাছ থেকে ভর্তূকি গ্রহণ করত। “দি সানডে টাইমস” নিজেদের প্রতিবেদনকে সম্পূর্ণরূপে পক্ষপাতহীন ও বস্তুনিষ্ঠ দাবি করে এসব উল্লেখ করা থেকে সতর্কভাবে দূরে ছিল। কিন্তু যখন “দি সানডে টাইমস” পাকিস্তান সরকারের পক্ষে প্রচারণায় ব্যস্ত ছিলো,  তখন তা এন ম্যাডিংটনের নতুন শ্রমবিষয়ক এমপি জনাব ব্রুস ডগলাস- ম্যানকে একটি শীতল    অভ্যর্থনা জানিয়েছিল। তিনি সবেমাত্র বাংলাদেশ সফর থেকে ফিরেছিলেন এবং “দি সানডে টাইমস”-কে সেই    অবস্থার বিবৃতি প্রদান করেছেন। লর্ড থমসনের অনুসারীগণ বিবৃতিটি বর্জন করে।

১৪ মে বাংলাদেশের সংগ্রামের ওপর মি. ডগলাস-ম্যানের জরুরি প্রস্তাবনা সংসদে উপস্থাপিত হবে। আশা করা হচ্ছে যে, পরিস্থিতি লুকানোর জন্য সাংবাদিকদের ষড়যন্ত্র সম্পর্কে তিনি বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপনের সুযোগ পাবেন।

ওয়ার্কস প্রেস, বৃহস্পতিবার, ৬ই মে,১৯৭১

বাংলাদেশ এ্যাসোসিয়েশন, স্কটল্যান্ড

১.৫ এলডেন স্ট্রীট

গ্লাসসো সি ৩