2

আলোচনায় অগ্রগতি হচ্ছে বলে ভুট্টোর ঘোষণা

Posted

<2.216.781>

                                          আমাদের অগ্রগতি হচ্ছে

                    ঢাকায় সাংবাদিকদের বললেন মি. জেড. এ. ভুট্টো, মার্চ ২৪, ১৯৭১ 

পিপল পার্টির চেয়ারম্যান মি. জেড. এ. ভুট্টো আজ এখানে বলেন, তিনি সবসময়ই পূর্ব বাংলার স্বার্থে আন্তরিক থেকেছেন এবং নিজের স্বীকার করেন যে এই প্রদেশ প্রতারিত হয়েছিল।

তিনি বলেন তার জাতীয় কর্তব্যও ছিল, “আমি অখণ্ড পাকিস্তানের প্রতি মনেপ্রাণে অনুগত”।

রাষ্ট্রপতি ভবনে সংক্ষিপ্ত আলোচনার পর হোটেলে ফিরার পথে মি. ভুট্টো সাংবাদিকদের বলেন, এ আলোচনায় অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। তিনি বলেন আলোচনা অব্যাহত এবং “আমরা অগ্রগতি সাধন করছি”।

এক এপিপি প্রতিবেদন অনুসারে, একটি প্রশ্নের উত্তরে, মি. ভুট্টো বলেন, রাষ্ট্রপতি, আওয়ামী লীগ এবং তার দলের উপদেষ্টাদের একটি যৌথ অধিবেশন এই আলোচনার জন্য সুবিধাযুক্ত হত। কিন্তু এই মুহূর্তে তা সম্ভব ছিলনা, তিনি বলেন।

সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করে পিপিপি প্রধান বলেন, পূর্ব পাকিস্তানের অবস্থা “ট্র্যাজিক এবং দুর্ভাগ্যজনক”।

পিপল’স পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, তার দলের কিছু সদস্য বিকালে ঢাকা ত্যাগ করেছে। তিনি বলেন, বর্তমান আলোচনার জন্য যাদের দরকার নেই তারা চলে গিয়েছে।

গতকাল মি. ভুট্টো সাংবাদিকদের বলেন, তিনি যত দীর্ঘ সময় প্রয়োজন এখানে থাকবেন।

সকালে রাষ্ট্রপতি ভবনের উদ্দেশ্যে রওনা হবার জন্য হোটেল ছাড়ার ঠিক পূর্বে পিপিআই এর সাথে কথা বলার সময়, পিপিপি প্রধান বলেন তিনি এখনো সিদ্ধান্ত নেননি তিনি কখন পশ্চিম পাকিস্তানে গিয়ে পিপিসি কেন্দ্রীয় কমিটির অন্য সদস্যদের সাথে দেখা করবেন।

“আমাকে এখানে কিছু আলোচনা করতে হবে”, তিনি যোগ করেন।

তিনি সম্ভাব্য কখন যেতে পারেন এই জিজ্ঞাসার উত্তরে বলেন, ” যত দীর্ঘ সময় প্রয়োজন হয় আমি এখানে থাকবো”।

দেশে রাজনৈতিক সংকটের নিরসন ঘটাতে প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান এবং শেখ মুজিবুর রহমানের মধ্যকার বিস্তৃত চুক্তি ও সমঝোতার “শর্তাবলী” পরীক্ষা করতে মি. ভুট্টো তার দলের সদস্যদের সাথে সোমবার সারারাত ব্যাপী একটি বৈঠকের আয়োজন করেন।