14

সেনাবাহিনী কর্তৃক বিদেশি সাংবাদিক বহিষ্কার

Posted
শিরোনাম সূত্র তারিখ
সেনাবাহিনী কর্তৃক বিদেশী সাংবাদিক বহিষ্কার নিউইয়র্ক টাইমস ২৮ মার্চ, ১৯৭১

 

Razibul Bari Palash

<১৪, , >

 

নিউ ইয়র্ক টাইমস, রবিবার, মার্চ ২৮, ১৯৭১

সেনাবাহিনী পাকিস্তান থেকে ৩৫ জন বিদেশী সাংবাদিক বহিষ্কার করেছে

  • গ্রেস লিস্টেন্সেন

 

সামরিক কর্তৃপক্ষ গতকাল পূর্ব পাকিস্তান ৪৮ ঘন্টার বেশী সময়ের জন্য এসেছে এমন ৩৫ জন সাংবাদিককে ঢাকার একটি হোটেল থেকে  বহিষ্কার করেছে।

 

পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর সৈন্যরা উত্তর ঢাকার ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে অবস্থানরত কিছু বিদেশী সাংবাদিককে হোটেল থেকে বের হলে গুলি করার হুমকি দিয়েছে। এই সেনারা পূর্ব পাকিস্তানের বেসামরিক বিদ্রোহীদের উপর গুলিবর্ষন করছিল।

 

করাচিতে প্লেনে করে তাদের পাঠানোর আগে সেখানকার সাংবাদিক – যাদের মধ্যে নিউ ইয়র্ক টাইমস সংবাদদাতা সিডনি এইচ Schönberg ছিলেন – তাদের অনুসন্ধান করা হয়েছে এবং তাদের কাছে পাওয়া নোট, চলচ্চিত্র ও ফাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

 

তাদের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, কানাডা, ফ্রান্স, জাপান এবং রাশিয়ার  সংবাদপত্র ও অন্যান্য মিডিয়ার প্রতিনিধি ছিল।

 

ঢাকায় থাকাকালীন সময়ে সাংবাদিকদের কোনো ফাইলিং বা কূটনৈতিক মিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করা থেকে বিরত রাখা হয়েছিল।

 

জনাব শ্যানবার্গ রিপোর্ট করেন যে, যখন হোটেল এলাকার ইনচার্জ লে কর্নেলকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল কেন বিদেশী সংবাদদের চলে যেতে বলা হচ্ছে – তখন তিনি বললেন “আমরা ব্যাখ্যা দিতে বাধ্য না, এটা আমাদের দেশ।”

 

তিনি মুখ ফিরিয়ে নিলেন, এবং অবজ্ঞাভরে স্মিত হাসি দিয়ে বললেন,: “আমরা আপনাদের চলে যেতে বলছি কারণ এটা আপনাদের জন্য নিরাপদ জায়গা নয়, খুবই রক্তাক্ত হতে পারে সেটা।”

 

এ এম রোজেন্থাল, টাইমসের ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক, পাকিস্তানি সরকারকে একটি টেলিগ্রামে বিক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

 


 

টেলিগ্রামে বলেনঃ

 

“নিউ ইয়র্ক টাইমস এর সংবাদদাতা সিডনি শ্যানবার্গ সহ আরও ৩০ জন বিদেশী সংবাদদাতাকে অন্যায্য এবং অভূতপূর্বভাবে ঢাকা থেকে বহিষ্কার করায় হতবাক হয়েছি। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতার সব মূলনীতির পরিপন্থী হওয়া সত্ত্বেও জনাব Schanberg এবং অন্যদের ঢাকায় ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থাকলে এবং যদি তারা তাদের সাংবাদিকতার দায়িত্ব পালন করতে বাইরে যায় তাহলে তাদের গুলি করা হবে বলে হুমকি দেয়া হয়েছে।

 

“পরবর্তীকালে তাদের কাগজপত্র ও ফিল্ম বাজেয়াপ্ত করে তাদের দেশ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এটা কি বিশ্বাস করতে পারি যে শুধুমাত্র সামরিক কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে এই ত্রুটি হয়েছে? আশা করছি যে আপনার সরকার অবিলম্বে এই অবস্থা দূর করবে।’