আফসানা আশা

Posted on Posted in 4

‘মৃত্তিকা’ নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম,প্রতিষ্ঠানটির সহ প্রতিষ্ঠাতা সিফাত হাসান সঙ্গীত,যিনি একই সঙ্গে আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র ভাই জানালেন যে, মৃত্তিকা বাংলাদেশ স্বাধীনতা যুদ্ধঃ দলিলপত্র প্রজেক্টের সঙ্গে যুক্ত হতে চায়। জানালেন প্রজেক্টটির মাহাত্ম্যের কথা,উদ্দেশ্যের কথা। মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে অনুবাদের এই কাজটি করতে আগ্রহী কিনা জানতে চাইতেই রাজী হয়ে গিয়েছিলাম। এরপর প্রজেক্ট ম্যানেজার সজীব বর্মণ ভাইয়ার থেকে বিস্তারিত জানি। সেই থেকে কাজের সূচনা। মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের সাক্ষী এই দলিলের পৃষ্ঠাগুলোর সঙ্গে নিজ নাম যুক্ত করতে পারার অনুভূতি অন্যরকম। গর্বিত জাতি আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছি,মুক্তিযুদ্ধ চেতনা আজ সকলের কাছে পৌঁছে দিয়ে আরও গৌরবান্বিত হবো। প্রজেক্টটির সঙ্গে যুক্ত সকলের প্রচেষ্টায় এটি এভাবেই এগিয়ে যাবে,তরুণ প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধকে উপলব্ধি করবে,ইতিহাস জানবে,দেশকে অকপটে ভালবাসবে, মুক্তিচেতনাকে নিজের মধ্যে লালন করবে সেটাই কাম্য। সুন্দর হোক আগামীর পথচলা।