3

কিশোর পলাশ ইমন

যুদ্ধদলিল প্রকল্পে একেবারেই অনুল্লেখযোগ্য পরিমাণে কাজ করার সৌভাগ্য হয়েছে, সেজন্য পরম করুণাময় আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা। দুঃখের জায়গাটা ফোর্থ ইয়ার এবং থিসিসের যন্ত্রণা, যেটুকু না থাকলে ইতিহাসের পক্ষে কাজ করার আরও প্রলম্বিত একটা সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। যুদ্ধদলিল প্রকল্পের জন্য কন্ট্রিবিউট করার কাজটাকে কখনোই স্বেচ্ছাসেবী কাজ হিসেবে দেখি নি, বরং দেখেছি এক পবিত্র দায়িত্ব হিসেবে। পবিত্র এই দায়িত্বটি যাঁদের জন্য গ্রহণ করার সুযোগ হয়েছে সবার প্রতি আমি গভীরভাবে কৃতজ্ঞ।

আমার কাছে স্বপ্নের বাংলাদেশ হলো সাম্যের গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ, স্বচ্ছতার বাংলাদেশ। যেখানে ক্ষমতাবানেরা সাধারণ জনগণের সঙ্গে মিলেমিশে একাকার হয়ে যাবেন, যেখানে জনগণ কর প্রদানে কোনো সংশয় রাখবে না, যেখানে সর্বস্তরের জনগণ ন্যায় বিচার পাবেন এবং অসাম্প্রদায়িক পরিবেশে ভবিষ্যত প্রজন্মকে নির্দ্বিধায় প্রগতির পথে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন।

আশা করি

 

গৌরবোজ্জ্বল মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের মতো গৌরবোজ্জ্বল সাম্যবাদী, স্বচ্ছ এক গণতান্ত্রিক ভবিষ্যত বাংলাদেশকে বরণ করে নেবে একদিন।