খন্দকার মনিরুজ্জামান

Posted on Posted in 6

মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল আমার শৈশবে। অস্ত্র হাতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের দেখেছি। শরণার্থীদের স্রোত দেখেছি। গ্রামের পর গ্রাম জ্বলতে দেখেছি। পরিত্যক্ত ধ্বংসপ্রাপ্ত বসতি দেখেছি। রাস্তার ধারে কিংবা নদীতে ভাসমান লাশ দেখেছি। একাধারে অবরুদ্ধ, ভয়াবহ এবং বীরত্ব-শৌর্যের নিদর্শনে পূর্ণ সেই দিনগুলি সম্পর্কে নতুন প্রজন্মের অনেকেই সচেতন না। এর অন্যতম কারণ তাদেরকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস না জানাতে বা বিকৃত ইতিহাস জানাতে সূক্ষ্ম ষড়যন্ত্র চলে এসেছে বহুদিন থেকে। বিষয়টি আমাকে পীড়া দিত। কাজেই কিছু উদ্যমী তরুণ যখন দলিলপত্র ভিত্তিক মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সাহায্যে উপস্থাপনের উদ্যোগ নেয়, তখন সে উদ্যোগের সাথে নিজের ক্ষুদ্র সামর্থ্য অনুসারে যুক্ত হতে দ্বিধা বোধ করি নি। এই উদ্যোগের মাধ্যমে কৌতূহলী পাঠকদের কাছে যেমন ইতিহাস পৌঁছে যাচ্ছে, আরো অনুসন্ধিৎসা তৈরি হচ্ছে, তেমনই আবার বিভিন্ন জনের মন্তব্যের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতার মূলনীতি বিরোধী চেতনার কী ভয়াবহ বিস্তার ঘটেছে, তারও পরিচয় পাওয়া যাচ্ছে। এর ফলে এই উদ্যোগের যথার্থতা আরো জোড়ালোভাবে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। আমি আশা করব ভবিষ্যতে এই পেজের লেখাগুলি বিষয়ভিত্তিক ও খোঁজযোগ্য আর্কাইভে সংরক্ষিত হবে। এই উদ্যোগের সাথে জড়িত সবাইকে আমার আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাই।