জিয়াউল আরেফীন তুহিন

Posted on Posted in 4

জ্ঞাত স্মৃতিতে মনে পরে না আমাকে ছোটবেলায় কোন শিক্ষক বা পরিচিত কেউ মুক্তিযুদ্ধের কথা বলেছেন বা গল্প করেছেন কিনা। দেশের জন্য ভালোবাসা,কিংবা দেশের জন্য ত্যাগের অনুভূতি কেমন করে জন্মে,তা আমার জানা নেই। কিন্তু এখন আমি আমার দেশকে অনেক ভালোবাসি। দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য-শেকড় নিয়ে আমি এখন পূর্ণ সচেতন। বই পড়ে,নানা জনের সাথে কথা বলে,আন্তর্জালে ঘাঁটাঘাঁটি করে। আর ঘাঁটাঘাঁটি করতে করতেই যুদ্ধদলিল প্রজেক্টের সাথে পরিচয়। অসাধারণ এই কর্মযজ্ঞকে দেখতে দেখতে আমারো কাজ করতে ইচ্ছে হচ্ছিলো। নক করে কাজ নিলামও। নানা ঝামেলা পাকিয়ে কাজ দিলাম এবং সেটা উপলব্ধি জাগিয়ে গেলো বিরাট। অবাক হয়ে বুঝলাম,এই যুদ্ধদলিল কর্মিবাহিনীর বিরক্তি নেই একফোঁটাও। এটা বিরক্তিহীনতা না,এটা ভালোবাসা। আমি এই ভালোবাসায় রিক্ত হতে চাই চিরকাল।