দীপংকর ঘোষ দ্বীপ

Posted on Posted in 10

আমি দ্বীপ। বর্তমানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বি.এস.সি অনার্স (গণিত)–এ অধ্যয়নরত। সিলেট শহরে আমার বাড়ি। সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজ, মুক্তিযুদ্ধ ভিক্তিক কর্মকান্ডে নিজেকে জড়িয়ে নেয়ার জন্য সবসময় প্রস্তুত থাকি। একদিন সন্ধ্যেবেলা দৈনিক পত্রিকা পড়তে পড়তে “ইউনিকোডে মুক্তিযুদ্ধের দলিল” প্রতিবেদনটির উপর চোখ পড়ল। সম্পূর্ণ প্রতিবেদনটি পড়ার পর বুঝতে পারলাম, মহান মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস বর্তমান ও পরবর্তী প্রজন্মের জন্য তুলে ধরার এই যুদ্ধে শামিল হয়েছেন তরুণ কিছু যোদ্ধা। এমনিতে মুক্তিযোদ্ধা, পথশিশু, আমাদের সংগঠন নিয়ে আমি আগে থেকেই সামাজিক কাজ করছি। তাই এরকম একটি বিরাট উদ্যোগের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ আমি হাতছাড়া করি নি। যেই ভাবা সেই কাজ। ফেইসবুক পেইজের মাধ্যমে পরিচিত হই “আল-আমিন”ভাইয়ের সঙ্গে। তারপর থেকেই শুরু হল মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাসের বার্তা দেওয়ার যুদ্ধ।

এখানে কাজ করতে এসে নিজের অনুভূতির কথা বলতে গেলে, একটাই কথা বলব “অসাধারণ”। আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, যতটুকু জেনেছি সেটাও দিদিমার কাছ থেকে, বই, টিভি, প্রতিবেদন ইত্যাদির মাধ্যমে। আমাদের দেশের মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস বাস্তবায়নের কাজ করার কথা ভাষায় প্রকাশ করা অসম্ভব। বিশেষ করে ১০ম খন্ডের কাজ করার সময় প্রতিটা দলিল লেখার সময় মনে হয়েছে, আমি নিজে যেন একটা যুদ্ধের ময়দানের মধ্যে আছি। মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিটা পদক্ষেপের কথা লিখার সময় অন্তরের মধ্যেই প্রতিটা ক্ষণের রূপ ভেসে উঠেছে। নিজের সামনেই যেন মুক্তিযুদ্ধ আবার হচ্ছে এবং আমি সেই যুদ্ধের একজন। পরিশেষে একটি কথাই বলব, যারা এই মহান কাজের সাথে যুক্ত সবাইকে আমার অন্তর থেকে বিনম্র শ্রদ্ধা। সেই দিন আর বেশি দূরে নয় যেদিন আমরা ভুলের জঞ্জাল থেকে বের হয়ে জানতে পারব আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস। সবাইকে শুভ-কামনা।