নীতেশ বড়ুয়া

Posted on Posted in 2

‘যতদিন বাংলার বুকে একটি হৃদয়ে হলেও মুক্তিযুদ্ধ জেগে থাকবে ততোদিন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধাদের অধিকারে থাকবে’- এ আমার কথা, মন থেকে বিশ্বাস করা। কিন্তু মাঝের বেশ কিছু সময় ‘মুক্তিযুদ্ধ’ ছাড়াই বেড়ে উঠেছে প্রজন্ম। ছোটবেলা থেকে জানা, শোনা আর পড়ার মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা আর বাংলাদেশের সৃষ্টি নিয়ে পরবর্তীতে বিভিন্ন মিথ্যাচারে ও ভ্রান্ত তথ্য দিয়ে বাজারী বই দেখে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলাম। মাঝে পরিচয় হয় একজন মুক্তিযোদ্ধার সাথে, আমার এই মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার কথা জেনে গত তিন বছর বেছে বেছে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক বই কিনে আমাকে উপহার দিয়ে বলেন ‘এতে সঠিক তথ্য আছে’ এবং সেই মানুষটিই এক সময় বলেন ‘বড়জোর আর ১০ বছর, এরপরে মুক্তিযুদ্ধ আর মুক্তিযোদ্ধার অস্তিত্ব মুছে যাবে আমাদের মৃত্যুর সাথে সাথে। ফেসবুক পেইজ থেকেই জেনেছিলাম ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধঃ দলিলপত্র থেকে বলছি’ নাম নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের দলিল প্রকাশ করা শুরু হয়েছে। কিন্তু সেদিন যখন তাজকিয়া ইসাবা ডাক দিলো, দলিল নিয়ে কাজ করার জন্য তখন স্বানন্দে রাজী হয়ে যাই, ন্যুনতম অভিজ্ঞতা না থাকার পরেও তাজকিয়া ইসাবার সাহস পেয়ে লেগে যাই দলিলের ২য় খণ্ড নিয়ে। শুধু এই আস্থায় যে ‘মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কাজ করছে নতুন প্রজন্ম! এর চাইতে বড় সুযোগ আর কি হতে পারে!!’ আমি কৃতজ্ঞ এই প্রজেক্টের সকলের কাছে এবং অত্যন্ত আনন্দিত ও গর্বিত এ নিয়ে। কাজ শুরু করার এক সপ্তাহের মাঝেই সেই মুক্তিযোদ্ধাকে জানিয়েছিলাম ‘মুক্তিযুদ্ধ ও তার দলিল নিয়ে কাজ হচ্ছে, করছে নতুন প্রজন্ম’ সেই সাথে ফেসবুক পেইজের কথা উনাকে জানালে; বিস্তারিত জেনেই বলেছিলেন ‘চালিয়ে যাও, খুবই কঠিন এই কাজ। যদি সাহায্য লাগে জানিয়ো।’ উনি আনন্দিত হয়েছিলেন, উৎসাহ দিয়েছেন।আমি গর্বিত দলিল নিয়ে কাজের সাথে সম্পৃক্ত হতে পেরে। আমি অনেক কিছুই জেনেছি দলিল নিয়ে কাজ করতে গিয়ে আর অবাক হয়ে ভেবেছি ‘কত ভুল জানে, কত কম জানে প্রজন্ম!’ এই কাজ করতে গিয়ে নিজেকে বলেছি ‘মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে দেশের জন্য স্বার্থহীন হয়ে যদি কাজ করে যেতে পারি তবে মরেও শান্তি।’ আমি সেই মুক্তিযোদ্ধাকে এখন বলি, ‘আপনাদের রক্ত, ত্যাগের এই সোনার বাংলার স্বপ্ন পূরণের দায়িত্ব হাতে নিয়েছে এই প্রজন্ম। ভবিষ্যতের জন্য মুক্তিযুদ্ধকে নিয়ে আসা হচ্ছে সবার সামনে, আপনাদের ঋণ শোধের পালা শুরু হলো আমাদের।’ আমি এমন বাংলাদেশ চাই যে বাংলাদেশের প্রতিটি প্রজন্ম জানবে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস আর এই মুক্তিযুদ্ধের দলিল প্রকাশ হলো সেই বাংলাদেশ গড়ার একটি ধাপ মাত্র।