1

সোহানুর উর রহমান

যুদ্বদলিলে কাজ করা বেশ চমৎকার একটা ব্যাপার। এত বড় একটা বিষয় এবং অনেকজনের সম্পৃক্ততায় একটা বড় কিছু হচ্ছে আর নিজেই এটার অতি সামান্য অংশে জড়িত-রোমন্থন করা যাবে বেশ। সরকারিভাবে না, সম্পূর্ণ বলতে গেলে ব্যাক্তিগত উদ্যেগে, কিছু আগ্রহী মানুষের আন্তরিক চেষ্টা আর অমানুষিক খাটাখাটনি দিয়ে এই প্রজেক্ট গড়া। মুক্তিযুদ্ধ্ব বাঙালিকে এক করেছে, বারবার এক করে, এক করে যাবে। এই প্রজেক্টও অনেক মানুষকে এক করেছে। যেমন আমার হলের নিচের ফ্লোরের একজন অনুবাদ করতো। একদিন রুমে অনুবাদরত অবস্থায় তার সাথে দেখা, মুচকি হাসি দিয়ে এরপর আলাপ শুরু, থামে কোথায়! এই প্রজেক্টের কাছে চাওয়া একটাই-আপামর শ্রেণিতে এটিকে পৌছে দেওয়া। অনলাইনে সীমাবদ্ধ না রেখে একে অফলাইনেও ছড়িয়ে দেওয়া হোক। আরো মানুষ জানুক, পড়ুক। একটি ধনুক শুরুতে যত পিছনে টানা যাবে, ছেড়ে দিলে সেটি তত সামনে এগোবে। দেশকে এগোতে পিছনের গল্পগুলো জানা জরুরি। দেশকে অনেক ধনী, অনেক ক্ষমতাবান দেখতে চাই না। শুধু ছোট্ট দেশটাতে নিজেদের মতো করে আত্মগৌরব নিয়ে সুখে থাকতে চাই। দেশটা একদিন বদলে যাবে। শুরুটা আমাদের দিয়ে হোক।