7

জাতিসংঘ মহাসচিবের কাছে পাকিস্তানের প্রতিবাদ

৭.৪৯.১১১

শিরোনামঃ ৪৯।“ জাতিসংঘ মহাসচিবের বক্তব্যের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের প্রতিবাদ”  

সূত্রঃ বাংলাদেশ ডকুমেন্টস   

তারিখঃ ১০আগষ্ট,১৯৭১

.

শেখ মুজিবর রহমানের বিচার নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের বক্তব্যের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের প্রতিবাদ লিপি।
১০ আগস্ট, ১৯৭১।

মার্চ থেকেই পূর্ব পাকিস্তানে সৃষ্টি হওয়া মানবেতর পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগকে পাকিস্তান সরকার স্বাগত জানিয়ে আসছে। সরকার এই বিষয়ে যেকোনো ধরণের মনোভাব পোষণ যা ক্ষমতার রাজনীতি দ্বারা প্রভাবিত নয় এবং পাকিস্তানের সীমাবদ্ধতাকে উৎসাহ দিয়ে প্রকাশ করা হয় সেগুলোকে উষ্ণভাবে গ্রহণ করে। এটি সর্ববজনবিদিত ছিল যে পূর্ব পাকিস্তান থেকে উচ্ছেদিত সাধারণ মানুষকে আবার দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসা নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবকর্তৃক করা বেশ কিছু উপদেশ পাকিস্তান সরকার অতিদ্রুত গ্রহণ করেছে।

এই সমঝোতাকে কোনোভাবেই পাকিস্তানীদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ বা রাজনৈতিক সমঝোতার ব্যাপারে পাকিস্তানকে নির্দেশের প্রচেষ্টার দিকে বাড়ানো যাবে না যা পূর্বাঞ্চলে পৌছাতে পারে। পাকিস্তানের প্রতিনিধিদল দুঃখপ্রকাশ জানাচ্ছে যে, গত ১০ই আগষ্ট জাতিসংঘের এক বিবৃতিতে মহাসচিবের মুখপাত্র তার পক্ষে শেখ মুজিবের আসন্ন বিচারের উপর মন্তব্য করেছেন যা একই সাথে মানবিক উদ্বেগের সীমা লঙ্ঘন করে এবং জাতিসংঘের দলিলানুসারে জাতিসংঘের পারদর্শিতা অতিক্রম করে।

আমাদের দুঃখ সচেতনতা এটি দ্বারা আরও গভির হয় যে,অনেক  বিচারের ক্ষেত্রেই এমনকি বিনা বিচারের কারাদন্ডে এবং বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক নেতাদের বিচারের রায়ের পর জাতিসংঘের পক্ষ থেকে কখনো কোনো মনোভাব জানিয়ে অনুভূতি প্রকাশ করা হয়নি।

পাকিস্তান সরকার শেখ মুজিবের কোনো মামলায় বিচারিক সিদ্ধান্তের ব্যাপারে পাকিস্তানের সীমানার বাইরের কোনো প্রস্তাব মেনে নেবে না।

এমন কোনো প্রতিক্রিয়াই অপরিহার্য না যতক্ষণ না পাকিস্তানের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিবেশী ইন্ডিয়া এই ব্যাপারে উসকানি না দিচ্ছে।