4

বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতি সমর্থনের জন্য বৃটিশ জনগণের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন, স্কটল্যান্ডের আহ্বান

<৪,১০,১৫>

শিরোনামসুত্রতারিখ
১০। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতি সমর্থনের জন্য বৃটিশ জনগণের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন, স্কটল্যান্ডের আহ্বানপ্রচারপত্র১৬ এপ্রিল, ১৯৭১

 

বৃটিশ জনগণের প্রতি একটি নিবেদন

আপনারা জেনে থাকবেন যে, ১৯৪৭ সালে সাবেক বৃটিশ ইন্ডিয়ার সময়কালে পাকিস্তান হাজার মাইলের ব্যবধানে দুই ভাগে বিভক্ত হয়েছিল যেটি সম্ভব হয়েছিল ১৯৪০  সালে  গৃহীত লাহোর প্রস্তাব দ্বারা, যেখানে বলা হয়েছিল,“…… যেসব এলাকায় মুসলিমরা সংখ্যাগরিষ্ঠ, যেমন ভারতের উত্তর-পশ্চিমাংশ ও পূর্বাংশ, সেসব একত্রিত হয়ে স্বাধীন রাষ্ট্র গঠন করবে যেখানে সংগঠনকারী একক গুলো হবে স্বায়ত্তশাসিত ও সার্বভৌম”।

১২ কোটি পাকিস্তানীর মধ্যে সাড়ে সাত কোটি মানুষ পূর্ব পাকিস্তানের, যারা শুরু থেকেই বেসামরিক বা সামরিক পশ্চিম পাকিস্তানি সরকারের কর্তৃক সকল প্রকার মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে যাতে সরকার পূর্ব পাকিস্তানে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক শোষণ বজায় রাখতে পারে।

শেখ মুজিব, যিনি গত ডিসেম্বরের সাধারণ নির্বাচনের পর জাতীয় সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতা হিসেবে উদিত হয়েছিলেন, তাকে পশ্চিম পাকিস্তানি সামরিক জান্তা কর্তৃক সরকার গঠন করতে দেয়া হয়নি যেহেতু মুজিবের পাকিস্তানের ভাবাদর্শের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ৬ দফা কর্মসূচিরউদ্দেশ্য ছিল পশ্চিম পাকিস্তানি শোষণের অবসান ঘটানো। সাড়ে সাত কোটি মানুষের গণতান্ত্রিক সিদ্ধান্ত কে সম্মান জানানোর পরিবর্তে বর্বর সামরিক জান্তা বাংলায় বন্দুক,ট্যাংক, কামান ও যুদ্ধবিমান পাঠাল হাজার হাজার শিশু, নারী ও পুরুষকেতাদের বাড়িতে,রোগীদের হাসপাতালে ও ছাত্রদের তাদের ছাত্রাবাসে হত্যা করার জন্য।

বাংলায় এখন যে গণহত্যা সংঘটিত হচ্ছে সেটি মানবতা ও মানবজীবনের বিরুদ্ধে অপরাধ এবং এই গণতন্ত্রের আসন থেকেআমরা  আপনাদের কাছে নিবেদন করছি বাংলাদেশের মানুষদের গণতান্ত্রিক উপায়ে জীবনযাপন করার জন্য তাদের এই সংগ্রামে সমর্থন প্রদান করার।

                                                                                  বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন

                                                                                             স্কটল্যান্ড