14

সৈন্য প্রত্যাহার করলেই সমস্যার সমাধান হবে না

শিরোনাম সূত্র তারিখ
১০১। সৈন্য প্রত্যাহার করলেই সমস্যার সমাধান হবে নাওয়াশিংটন পোস্ট২১ অক্টোবর ১৯৭১

 

ঐন্দ্রিলা অনু

<১৪, ১০১, ২৩৯>

 

ওয়াশিংটন পোস্ট, ২১ অক্টোবর ১৯৭১

সৈন্য প্রত্যাহার করলেই সমস্যার সমাধান হবে না

 

নয়াদিল্লী, ২০ অক্টোবর- একজন অফিশিয়াল মুখপাত্র আজ জানিয়েছে যে, ভারত যুক্তরাষ্ট্রকে বলেছে যে ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করলেই পূর্ব পাকিস্তানের সমস্যার সমাধান হবে না।

 

তিনি বলেছেন যে, যুক্তরাষ্ট্র কোন সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব দেয়নি, তবে সীমান্ত থেকে দুই দেশেরই ৬ মাইল পেছনে আসার ধারনাগুলো ছড়িয়ে পড়েছে ।

 

তিনি বলেন, এই ধারনাগুলো গ্রহন করা বা প্রত্যাখ্যান করা মূল কথা নয় বরং এটা বুঝতে পারা যে বর্তমান সমস্যার মুলে পূর্ব পাকিস্তান ইস্যু । তিনি আরও বলেন, এই সমস্যার সমাধান করতে হবে ইসলামাবাদের মিলিটারি শাসক, পাকিস্তানের রাজধানী এবং পূর্ব পাকিস্তানের নির্বাচিত নেতা যাদের বেশিরভাগই নিষিদ্ধ আওয়ামীলীগের সদস্য যার নেতা ছিল বন্দী শেখ মুজিবর রহমান। 

মুখপাত্র এক প্রেস ব্রিফিং এ বলেন, এই অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্র বা সোভিয়েত ইউনিয়ন কেউই ভালো কোন সেবা বা মধ্যস্ততার প্রস্তাব দেয়নি ।

 

মুখপাত্র বলেন, ভারত আশা করেছিল যে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খানের উপর চাপ প্রয়োগ করবে যেন ভারতে অবস্থানরত পূর্ব পাকিস্তানের উদ্বাস্তুরা ফিরে যেতে পারে ।

 

তিনি আরও বলেন, যদি তা করা না হয়, তাহলে ভারত তাদেরকে ফেরত পাঠানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়ার অধিকার সংরক্ষণ করে । কিন্তু তিনি এটাও নিশ্চিত করেন যে, ভারত পাকিস্তানের সাথে যুদ্ধে যাওয়ার মতো কিছুই করবে না ।

 

আজ দিনের শুরুতে প্রেসিডেন্ট টিটোর ৪ দিনের সফর শেষে একটি যৌথ ইশতেহার জারি করা হয়েছে । ভারত এবং যুগোস্লাভিয়া সতর্ক করেছে যে , যদি খুব দ্রুত একটা সমাধান বের করা না যায়, তাহলে পূর্ব পাকিস্তানের অবস্থা আরও অবনতির দিকে যাবে ।

 

ইশতেহারে বলা হয়, তারা সম্মতি জ্ঞাপন করেছে যে এই সমস্যাটা যেটা নিজে অস্থায়িত্ব এবং দুশ্চিন্তার জন্ম দিয়েছে সেটার জন্য রাজনৈতিক বন্দোবস্ত প্রয়োজন ।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী মিসেস ইন্দিরা গান্ধী বলেছেন যে, এই বন্দোবস্তের জন্য বন্দী শেখ মুজিবর রহমানের নিঃশর্ত মুক্তি প্রয়োজন ।