6

৭৫. ১০ সেপ্টেম্বর পশ্চিম পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর কাজ

অনুবাদঃ তুষার শুভ্র

<৬, ৭৫, ৭১৬>

শিরোনামঃ পশ্চিম পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর কাজ

সংবাদপত্রঃ বাংলাদেশ ভলিউম ১ নং ২

তারিখঃ ১০ সেপ্টেম্বর, ১৯৭১

.

পশ্চিম পাকিস্তান আর্মি-গেস্টাপো আর এস.এস. এর অন্য নাম

 

সুপরিচিত শিক্ষাবিদ এবং প্যারিসের দ্যা স্টাডিস অব দ্যা একোল ডে প্র্যাটিক হউটস্ এটিউডস্ এর ডিরেক্টর প্রফেসার লুই ডুমন্ট ৬ আগস্ট বিখ্যাত সাপ্তাহিক “লা মন্ডে” তে “বাংলাদেশ চিরজীবি হোক” শিরোনামে একটি প্রবন্ধ লিখেন।

ইন্টার আলিয়া অনুচ্ছেদে ২৬শে মার্চ সকালে পাকিস্তান দখলদার  বাহিনীর একটি ফিল্ড ইউনিটের সাথে কুর্মিটোলায় হেডকোয়ার্টারের টেলিফোন কথোপকথন ফাঁস করা হয়। কথোপকথনটি সংক্ষিপ্ত আকারে প্রবন্ধটিতে নিম্নোক্তাকারে প্রকাশ করা হয়,

পাকিস্তান আর্মি হেডকোয়ার্টাস: আনুমানিক কয়জন মেরেছ?

প্রবন্ধটিতে আরো বলা হয় ”

ফিল্ড ইউনিট: অন্তত ৩০০জন।

হেডকোয়ার্টাস : ভালো করেছ……খুব ভালো।

প্রবন্ধে আরো বলা হয় ” ঐ যোগাযোগে তাদের আদেশের নিশ্চয়তা দিয়ে এটা বলা হয় যে, লাশ পুঁতে রাখার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্মীদের দিয়ে গর্ত খনন করা হয়েছে এবং কাজ শেষ হওয়ার পর তাদেরকে ওখানেই খুন করা হয়েছে। এগুলোই প্রমান করে দেয় যে একটি নিয়মিত সৈন্যদলকে কিভাবে গেস্টাপো ও এস.এস এর সমকক্ষ বলা যায় এবং পরবর্তীতে ঘটানো নৃশংস হত্যাকান্ড তারই স্বাক্ষর বহন করে।