7

রাকিব মাহমুদ

স্কুলে থাকার সময় স্কুলের লাইব্রেরি থেকে রেগুলার বই নিয়ে যেতাম, এভাবেই কোন একদিন “একাত্তরের দিনগুলি” বইটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে পড়ি। ঐ যে ওখান থেকেই মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের প্রতি আকর্ষণটা অনেক বেশি তীব্র হয়। তখন থেকে টিভিতে যুদ্ধের সিনেমা আর নাটকগুলো হাঁ করে গিলতাম, বইগুলো একনাগাড়ে পড়তাম। যদিও প্রথমদিকে পাকিস্তানি বাহিনী আর হানাদার বাহিনীকে ভিন্ন ভাবতাম। তারপরে তো ব্লগের যুগ আসলো, সেখান থেকে মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে আরো জানতে থাকলাম। ২০১৫ এর শেষের দিকে “বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধঃ দলিলপত্র থেকে বলছি” পেইজটা চোখে পড়ে যেখানে পনেরো খণ্ডের দলিলপত্র ইউনিকোডে টাইপ করা হবে ধীরে ধীরে।দলিলপত্র প্রজেক্টেটাইপিং এর কাজ করার ইচ্ছা ছিল কিন্তু কিছু সমস্যার কারণে সেখানে কাজ করা সম্ভব হয় নি। তারপরে হঠাৎ একদিন রা’আদ ভাই ফেসবুকে নক করে বলে যে, ” ভলান্টিয়ার লাগবে, তুমি কি রাজি আছো?” তারপরে কাজ করার সুযোগ পেয়ে রাজি হয়ে গেলাম এবং অবসরে অল্প অল্প কাজ করে যাচ্ছি।ভবিষ্যতে ইতিহাস যেন আর বিকৃত না হয়, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে নতুন প্রজন্মের স্বচ্ছ ধারণা থাকে এবং শিক্ষার্থীদের জন্য “মুক্তিযুদ্ধ” নামে আলাদা একটা বিষয় বাধ্যতামূলক করা হয় এটাই চাওয়া। তথ্য হোক উন্মুক্ত। আমাদের পরিচয় হোক একটাইঃ মুক্তিযুদ্ধ……