বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ: দলিলপত্রের ২য় খণ্ডের ০১ নং পৃষ্ঠায় মুদ্রিত ০১ নং দলিল থেকে বলছি-

শিরোনামসূত্রতারিখ
আইয়ুব খান কর্তৃক সামরিক আইন ঘোষণাসরকারী৭ অক্টোবর, ১৯৫৮

 সামরিক আইন ঘোষণা

[পাকিস্তান সরকারের বিজ্ঞপ্তি নং ৯৭৭/৫৮, তারিখ ৭ই অক্টোবর, ১৯৫৮ সাল। গেজেটের অতিরিক্ত সংখ্যা, ১৫ই অক্টোবর, ১৯৫৮ সাল]

১। যেহেতু আমি জাতীয় প্রয়োজনের তাগিদে পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক সীমানার অভ্যন্তরে এক্তিয়ার প্রয়োগ করা অপরিহার্য বিবেচনা করছি, সেহেতু আমি, পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনীসমূহের সর্বাধিনায়ক, এতদ্বারা নিম্নোক্ত নোটিশ প্রদান করছি।

২। সম্ভাব্য সুবিধাজনক পন্থায় সামরিক আইনের রেগুলেশন ও হুকুমনামা প্রকাশ করা হবে।  উল্লিখিত রেগুলেশন ও হুকুমনামা লংঘন করলে যে কোনও ব্যক্তি সামরিক আইন অনুসারে এসব রেগুলেশনে বর্ণিত দণ্ড ভোগের যোগ্য বলে বিবেচিত হবে।

৩। সাধারণ আইন অনুসারে নির্ধারিত অপরাধের জন্য উল্লেখিত রেগুলেশনসমূহ বিশেষ দণ্ডের বিধান প্রদান করা যেতে পারে।

৪। উল্লেখিত রেগুলেশন ও হুকুমনামা লংঘনের অপরাধ এবং সাধারণ আইন অনুসারে নির্ধারিত অপরাধের বিচার করার ও শাস্তি প্রদান করার জন্য উল্লিখিত রেগুলেশনের মাধ্যমে বিশেষ আদালত নিয়োগ করা যেতে পারে।

মুহাম্মদ আইয়ুব খান,

এইচ.পি. এইচ.জে.

জেনারেল,

সর্বাধিনায়ক ও পাকিস্তানের সর্বোচ্চ

সামরিক আইন প্রশাসক।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + fourteen =